চট্টগ্রাম, রোববার, ২১ এপ্রিল ২০২৪ , ৮ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ঈদের আগে রমরমা চট্টগ্রামের খলিফাপট্টি

প্রকাশ: ৩১ মার্চ, ২০২৪ ১১:১৬ : পূর্বাহ্ণ

 

ঈদকে সামনে রেখে বাহারি ডিজাইনের পোশাক তৈরি ও বিক্রিতে ব্যস্ত সময় পার করছেন চট্টগ্রামের সুপরিচিত খলিফাপট্টির ব্যবসায়ী ও কারিগররা। দেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে গ্রাহকরা এখানে পোশাক কিনতে আসেন। ফলে কর্মসংস্থান হচ্ছে কয়েক হাজার শ্রমিকের। ঐতিহ্যবাহী এই শিল্পকে বাঁচিয়ে রাখতে স্থায়ীভাবে খলিফাপট্টি স্থাপনের জন্য সরকারের পৃষ্ঠপোষকতা চাইছেন সংশ্লিষ্টরা।

 

১৯৪৭ সালে আইয়ুব আলী নামের একজন দর্জি কয়েকজনকে নিয়ে চট্টগ্রাম নগরীর ঘাটফরহাদবেগ এলাকায় পোশাক সেলাইয়ের কাজ শুরু করেন। একপর্যায়ে খলিফাপট্টি নামেই এলাকাটি পরিচিত হয়ে যায়। ঈদকে সামনে রেখে এখন ভীষণ ব্যস্ত সময় পার করছেন সেখানকার কারিগররা।

খলিফাপট্টির প্রায় তিনশ’র বেশি ছোট-বড় কারখানায় কাজ করেন চার হাজারেরও বেশি শ্রমিক। প্রতিদিন তারা বানান বাহারি নকশার পোশাক। এখানকার তৈরি পোশাক কিনতে আসেন দেশের বিভিন্ন স্থানের পাইকারি ও খুচরা ক্রেতারা।

 

খলিফাপট্টিকে শিল্পের রূপ দিতে চান এখানকার ব্যবসায়ীরা। তাই সরকারিভাবে জায়গা বরাদ্দ ও সহযোগিতার দাবি জানান খলিফাপট্টি বণিক কল্যাণ সমিতির সভাপতি খন্দকার নুরুল ইসলাম। খলিফাপট্টির ব্যবসায়ীদের দাবি, সরকারি পৃষ্ঠপোষকতা পেলে দেশের পোশাক খাতে ভারত ও পাকিস্তানের ওপর নির্ভরতা কমে আসবে।

 

সূত্র: বৈশাখী অনলাইন

Print Friendly and PDF