চট্টগ্রাম, মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪ , ৩রা বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

শেষের পথে ৬৮ মেগাওয়াট সৌরবিদ্যুৎ কেন্দ্রের কাজ

প্রকাশ: ২৮ মার্চ, ২০২৪ ২:৩১ : অপরাহ্ণ

 

সিরাজগঞ্জের সায়েদাবাদে ৬৮ মেগাওয়াটের সৌরবিদ্যুৎ কেন্দ্রের নির্মাণ কাজ শেষের পথে। আগামী মে মাসের শুরুর দিকে উৎপাদনে যাবে বাংলাদেশ ও চীনের যৌথ উদ্যোগের এই বিদ্যুৎ কেন্দ্র।

প্রতিষ্ঠানটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক জানান, বঙ্গবন্ধু সেতুর উত্তর পাড়ে পতিত চরে ২৭ হাজার পিলারে বসানো হয়েছে দেড় লক্ষাধিক সোলার প্যানেল।

 

যমুনা নদীর তীর ঘেঁষে সিরাজগঞ্জের সায়দাবাদ এলাকায় ২১৪ একর জমির ওপর গড়ে উঠেছে ৬৮ মেগাওয়াট ক্ষমতার সিরাজগঞ্জ সোলার পার্ক। বাংলাদেশ ও চায়না রিনিউয়েবল এনার্জি কোম্পানির যৌথ উদ্যোগে করা হচ্ছে এই বিদ্যুৎ কেন্দ্র। বঙ্গবন্ধু সেতুর উত্তর পাড়ে সেতু কর্তৃপক্ষের পতিত চরের জমিতে ২০ বছরের চুক্তিতে এই সোলার পার্ক নির্মাণ করা হয়।

 

২৭ হাজার পিলারে বসানো হচ্ছে দেড় লক্ষাধিক সোলার প্যানেল। এগুলো বসানোর কাজ শেষ পর্যায়ে। অন্যান্য স্থাপনার কাজও প্রায় শেষ।

এই কেন্দ্র থেকে বিদ্যুৎ কিনতে বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড পিডিবি’র সঙ্গে পিপিপি চুক্তি হয়েছে। প্রতি কিলোওয়াট ঘণ্টা ইউনিট বিদ্যুতের দাম পড়বে ১০ দশমিক ২০ ইউএস সেন্ট। ডলারের বর্তমান বিনিময় হার ১১০ টাকা হিসেবে প্রতি ইউনিটের দাম ১১ টাকা ২২ পয়সা।

 

বিসিআরইসিএল ব্যবস্থাপনা পরিচালক এ এম খোরশেদ আলম জানান, যৌথ অর্থায়নে বিদ্যুৎ কেন্দ্রটির ৫০ শতাংশ মালিকানায় রয়েছে বাংলাদেশের রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠান নর্থওয়েস্ট পাওয়ার জেনারেশন কোম্পানি লিমিটেড এবং বাকি অর্ধেক মালিকানা চীনের রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠান চায়না ন্যাশনাল মেশিনারি ইম্পোর্ট অ্যান্ড এক্সপোর্ট করপোরেশন।

 

প্রতিষ্ঠানটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক জানান, এই বিদ্যুৎ কেন্দ্র থেকে আগামী মে মাসে জাতীয় গ্রিডে বিদ্যুৎ যাবে।

এই প্রকল্পে ইপিসি ঠিকাদার হিসেবে কাজ করছে চীনা কনসোর্টিয়াম অব প্যারিওশেন-ফেডি-সিনোহাইড্রো। কারিগরি পরামর্শক হিসেবে রয়েছে স্থানীয় প্রতিষ্ঠান জেডটেনকো লিমিটেড।

 

Print Friendly and PDF