চট্টগ্রাম, শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪ , ১লা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

৩ বছরের লড়াই শেষ মৃণাল সেনের মানসকন্যার

প্রকাশ: ২৯ জানুয়ারি, ২০২৪ ২:১৯ : অপরাহ্ণ

 

মারণরোগের সঙ্গে লড়াই শেষ করে গত শনিবার না ফেরার দেশে পাড়ি জমান অভিনেত্রী শ্রীলা মজুমদার। শ্রীলা মজুমদারের মৃত্যুর খবরে শোকের ছায়া নেমে এসেছে টলিউডে। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৬৫ বছর। বিগত ৩ বছর ধরে ডিম্বাশয়ের ক্যানসারে ভুগছিলেন এ অভিনেত্রী।

প্রয়াত অভিনেত্রী শ্রীলা মজুমদারের মৃত্যুর খবরে শোকের ছায়া নেমে এসেছে টলিউডে। তার  মৃত্যুতে শোকে আচ্ছন্ন পরিবার। অভিনেত্রীর মৃত্যুর খবরে ভেঙে পড়েছেন তাঁর সতীর্থরাও। শনিবার রাতেই কেওড়াতলা মহাশ্মশানে শেষকৃত্য সম্পন্ন হয় অভিনেত্রীর।

 

১৩ থেকে ২০ শে জানুয়ারি পর্যন্ত টাটা মেডিক্যাল ক্যানসার সেন্টারে ভর্তি ছিলেন শ্রীলা। তারপর অভিনেত্রীকে বাড়িতে নিয়ে আসা হয়। জানিয়েছেন শ্রীলার স্বামী এসএনএম আব্দি। গত বছর নভেম্বর মাসে শারীরিক অবস্থার অবনতি হয় অভিনেত্রীর।

শেষ বার কৌশিক গঙ্গোপাধ্যায় পরিচালিত ‘পালান’ সিনেমায় শ্রীলাকে পর্দায় দেখা গিয়েছিল। তবে পর্দার বাইরে শেষ বার তাঁকে দেখা যায় গত বছর আলিপুর জেল মিউজিয়ামে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিজয়া সম্মিলনী অনুষ্ঠানে।

 

১৯৮০ সালে মৃণাল সেনের ‘পরশুরাম’ ছবির মাধ্যমে অভিনয় জগতে হাতেখড়ি শ্রীলার। তখন শ্রীলা ১৬ বছরের কিশোরী। নাটকের মহড়ায় শ্রীলার অভিনয় দেখেই তাঁকে নিজের সিনেমার অভিনেত্রী হিসাবে বেছেছিলেন মৃণাল। তার পর ‘এক দিন প্রতি দিন’ ‘আকালের সন্ধানে’, ‘খারিজ’-এর মতো উল্লেখযোগ্য ছবিতে অভিনয় করেছেন শ্রীলা। শাবানা আজমি, স্মিতা পাতিল, নাসিরউদ্দিন শাহের মতো অভিনেতাদের সঙ্গে পর্দা ভাগ করে নিয়েছেন তিনি।

 

সুত্র:বৈশাখী অনলাইন

Print Friendly and PDF