চট্টগ্রাম, বুধবার, ২২ মে ২০২৪ , ৮ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

‘আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা করেছে আওয়ামী লীগ’

প্রকাশ: ২১ অক্টোবর, ২০২৩ ৫:৪৩ : অপরাহ্ণ

 

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন জিয়াউর রহমান অবৈধভাবে ক্ষমতা দখল করে সংবিধান ক্ষতবিক্ষত করেছিল। মানুষের বিচার পাওয়ার অধিকার কেড়ে নিয়েছিল। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পর বিচারহীনতার সংস্কৃতি দূর করে দেশে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা করেছে।

শনিবার, রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আইনজীবী মহাসমাবেশে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, যারা অগ্নি সন্ত্রাস করেছে, মানুষ খুন করেছে তাদের বিচার অবশ্যই হবে।

 

 

শেখ হাসিনা বলেন, ‘কেউ যেন দেশের মানুষের ভাগ্য নিয়ে খেলতে না পারে সেজন্য তাঁর সরকার কাজ করছে। আন্দোলনের নামে বিএনপি- জামায়াত মাঠে নামতে চায়। যদি তারা অগ্নি সন্ত্রাস, দুর্বৃত্তায়ন করে আমরা তাদের ছেড়ে দেবো না। তারা ক্ষমতায় থাকাকালে নিজের ভাগ্য পরিবর্তন করেছে, দেশের মানুষের নয়। বাংলাদেশে আজ হাহাকার নেই, বদলে গেছে বাংলাদেশ।’

বাংলাদেশ অসাম্প্রদায়িক দেশ উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘সবাই যার যার ধর্ম পালন করবে। বাংলাদেশে সাম্প্রদায়িক কোন ঘটনা যেন না ঘটে। মানবাধিকার সুরক্ষিত থাকে, ন্যয় বিচার প্রতিষ্ঠা পায় সেজন্য সরকার কাজ করছে।’

শেখ হাসিনা বলেন, ‘বিএনপি ২০০১ এ ক্ষমতায় এসে দেশে জঙ্গিবাদ, দুর্নীতির শাসন কায়েম করে। এসবের বিরুদ্ধে আমার সংগ্রাম অব্যাহত থাকে। আমি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবের মেয়ে আমি দমে যাওয়ার না, আমি নিজের সুযোগ সুবিধার জন্য ক্ষমতায় আসিনি।’

 

 

প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, ‘দুর্নীতি করতে ক্ষমতায় আসিনি, মানুষের কল্যাণ করতে এসেছি। আইনের শাসনের পাশাপাশি দেশের উন্নয়নের অগ্রযাত্রা অব্যাহত থাকবে। আওয়ামী লীগ এদেশের মানুষের কল্যাণে কাজ করেছে যখনই ক্ষমতায় এসেছে। আইনজীবী ও বিচারকদের উপর হামলা করেছিলো বিএনপি। আমরা তাদের নিরাপত্তা দিয়েছি। দেশের সার্বিক উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছে সরকার। নারী শিশুরা অবহেলিত তারা যেন বিচার পায় তা নিশ্চিত করতে হবে। কারাগারগুলোতে ভার্চুয়াল কোর্ট যেন বসতে পারে সেই ব্যবস্থা করেছে সরকার। স্মার্ট জুডিশিয়ারি গড়তে বিভিন্ন পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে।’

এসময়, আইনজীবীদের ফান্ডে প্রধানমন্ত্রীর কল্যাণ তহবিল থেকে ৩০ কোটি টাকা অনুদান দেয়ার ঘোষণা দেন প্রধানমন্ত্রী। প্রতি জেলায় আইনজীবীদের জন্য বিশেষ প্লটের ব্যবস্থা করে দেয়ার কথাও বলেন তিনি।

এর আগে সকালে বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের নবনির্মিত ভবনের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

 

 

সূত্র – বৈশাখী  অনলাইন

Print Friendly and PDF