চট্টগ্রাম, রোববার, ১৪ জুলাই ২০২৪ , ৩০শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

‘হাইভোল্টেজ’ ম্যাচে কাল মুখোমুখি হবে পাকিস্তান-অস্ট্রেলিয়া

প্রকাশ: ১৯ অক্টোবর, ২০২৩ ১১:১১ : পূর্বাহ্ণ

বিশ্বকাপের হাইভোল্টেজ ম্যাচে মুখোমুখি হবে দুই জায়ান্ট অস্ট্রেলিয়া ও পাকিস্তান। আগামীকাল শুক্রবার (২০ অক্টোবর) বেঙ্গালুরুতে দুপুর আড়াইটায় শুরু হবে এই ম্যাচ।

টপ ফেভারিটের তকমা নিয়ে বিশ্বকাপ অভিযান শুরু করার পর প্রথম ম্যাচে ভারতের কাছে ৬ উইকেটের হারে নাস্তানাবুদ হয় অস্ট্রেলিয়া। পরের ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে রান পাহাড়ে চাপা পড়ে মাত্র ১৭৭ রানে অলআউট হয়ে অনেকের আস্থা হারিয়েছে অস্ট্রেলিয়া। তবে নিজেদের তৃতীয় ম্যাচে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দাপুটে জয়ে আবারও সেরা ছন্দে ফেরার ইঙ্গিত দিয়েছে অজিরা।

সেই ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে পাকিস্তানের বিপক্ষে জয় চায় অজিরা। পাকদের হারাতে পারলে টপ ফোরে যাওয়ার পথটা সুগম হবে কামিন্সের দলের। তবে সেই লক্ষ্য পুরণ করতে ব্যাটারদের দিতে হবে সেরাটা। ছন্দ হারানো ব্যাটিং লাইনআপের সবচেয় বড় আশা মার্নাস লাবুশেন। সবশেষ ১০ ম্যাচে সর্বাধিক ৪৫৪ রান করেছেন এই ব্যাটার। দ্বিতীয় সেরা ডেভিড ওয়ার্নার সমান ম্যাচে ৪৩২ রান করেছেন। এই দুজনের বড় স্কোর করাটা খুব জরুরি পাকিস্তান বধের মিশনে।

অস্ট্রেলিয়া একাদশে একটি পরিবর্তনের গুঞ্জন আছে। আইসিসি র‍্যাংকিংয়ে শীর্ষ বোলার হ্যাজলউড গত দুই ম্যাচে ব্যর্থ হওয়ায় তার পরিবর্তে সুযোগ পেতে পারেন ক্যামেরন গ্রিন। তবে পাকিস্তান বধে অজিদের সবচেয়ে বড় অস্ত্র হতে পারেন স্পিনার অ্যাডাম জাম্পা। এই লেগ স্পিনারের ফর্ম আর পাকিস্তানি মিডল অর্ডারের স্পিন দুর্বলতা বলছে সে কথাই।

তবে টানা ১০ ম্যাচ হারের পর সবশেষ দুই ম্যাচে অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়ে পাকিস্তান প্রমাণ করেছে বর্তমান দলটির সক্ষমতা আছে অজিদের বধ করার। সেই মিশনে পাকিস্তানের বড় শক্তি ইনফর্ম মোহাম্মদ রিজওয়ান আর বাবর আজমের ফর্ম। অনেকের মতে, বিগ ম্যাচে বাবর আজম জ্বলে উঠতে পারেন না। আগামীকাল সেই অভিযোগ খণ্ডানোর দিন হতে পারে পাকিস্তান দলপতির।

অজিদের বিপক্ষে বড় স্কোর করতে হলে মিডল অর্ডার ব্যাটারদেরও দায়িত্ব নিতে হবে। ভারতের বিপক্ষে মিডল অর্ডার কলাপ্স করেছিল, একই ভুল বারবার করা যাবে না। সেই চ্যালেঞ্জ জয় করতে ইফতেখার আহমেদের ব্যাট হাতে রান করাটা খুব জরুরি। পাকিস্তানকে ম্যাচ জয়ের ভীত গড়ে দিতে পারে তিন পেসার। শাহিন আফ্রিদির পাশাপাশি হাসান আলী ও হারিস রউফও আছেন ছন্দে। অজিদের বিপক্ষে সেরাটা দিতে হবে তাদের।

পাকিস্তানের সাথে মুখোমুখি পরিসংখ্যানে ঢের এগিয়ে অস্ট্রেলিয়া। দুই দলের ১০৭ মোকাবেলায় পাকিস্তানের ৩৪ জয়ের বিপক্ষে অজিরা জিতেছে ৬৯ ম্যাচ।

Print Friendly and PDF