চট্টগ্রাম, শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪ , ১০ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

হুমকিতে মেঘনা তীরের জনপদ

প্রকাশ: ২১ আগস্ট, ২০২৩ ১২:৪২ : অপরাহ্ণ

নরসিংদীর রায়পুরার চরাঞ্চলে যত্রতত্র ড্রেজার মেশিন বসিয়ে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করা হচ্ছে। এতে হুমকির মুখে পড়েছে মেঘনা নদীর তীরবর্তী জনপদ। অথচ চলতি বছর এই উপজেলায় কোন বালুমহালের ইজারা দেয়নি প্রশাসন।

স্থানীয়দের অভিযোগ, পার্শ্ববর্তী জেলা ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ইজারা নিয়ে নরসিংদীর অভ্যন্তরে এসে অবাধে বালু উত্তোলন করছে একটি চক্র। এতে শতশত বিঘা ফসলী জমি, ঘর-বাড়িসহ বিভিন্ন স্থাপনা হুমকির মুখে পড়লেও তা রক্ষায় প্রশাসনের কোন নজরদারি নেই বলে অভিযোগ স্থানীয়দের।

 

 

নরসিংদীর রায়পুরার চরাঞ্চলে মেঘনা নদীর অব্যাহত ভাঙ্গনে বিলিন হয়ে যাচ্ছে উপজেলার শত শত বাড়ি-ঘর, ফসলী জমি, স্কুল-মাদ্রাসা-কবরস্থানসহ গুরুত্বপূর্ন স্থাপনা। এ কারণে গত তিন বছর ধরে এই অঞ্চলে কোন বালু মহাল ইজারা দিচ্ছে না প্রশাসন। তবে পার্শ্ববর্তী জেলা ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ইজারা নিয়ে নরসিংদীর অভ্যন্তরে দিনে ও রাতের আঁধারে অবাধে চলছে বালু উত্তোলন।

 

 

স্থানীয়দের অভিযোগ, নরসিংদী ও ব্রাহ্মণবাড়িয়ার প্রভাবশালীদের পৃষ্ঠপোষকতায় মেঘনা নদী থেকে নিয়মিত চলছে বালু উত্তোলন। ফলে ব্রাহ্মণবাড়িয়া এবং নরসীংদির রায়পুরা উপজেলার চানপুর, কালিকাপুর, মাঝেরচর, সাহেরখোলা, চর কেদেরখোলাসহ বেশ কিছু অঞ্চল রয়েছে ভাঙ্গন হুমকিতে।

 

 

জেলা পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী বিজয় ইন্দ্র সংকর চক্রবর্তী জানালেন, নরসিংদীতে মেঘনা নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন বন্ধে নজরদারী বাড়ানোর পাশাপাশি জেলা প্রশাসনকে লিখিত ও ব্যক্তিগতভাবে জানানো হয়েছে।

জেলা প্রশাসক আবু নইম মোহাম্মদ মারুফ খান জানালেন, অভিযুক্তদের জরিমানা করার পাশাপাশি বালু উত্তোলন বন্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে।

 

 

সূত্র – বৈশাখী  অনলাইন

Print Friendly and PDF