চট্টগ্রাম, মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪ , ৩রা বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মেসি জাদুতে প্রথমবারের মতো ফাইনালে মায়ামি

প্রকাশ: ১৬ আগস্ট, ২০২৩ ২:৫০ : অপরাহ্ণ

সেমিফাইনালের মতো গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচের আগে দলের সেরা তারকাকে পাওয়া নিয়ে শঙ্কা জেগেছিল ইন্টার মায়ামির। কিন্তু সেই বাধা দূর করে মাঠে নেমে দলকে জয়ের বন্দরে নোঙর গাড়লেন লিওনেল মেসি। দলের বড় জয় করলেন একটি গোলও। এতে করে নিজের ফুটবল ইতিহাসে প্রথমবারের মতো কোনো টুর্নামেন্টের ফাইনালে উঠলো ইন্টার মায়ামি। অথচ এই দলটাই একের পর এক পরাজয়ে কোণঠাসা হয়েছিল।

 

 

বাংলাদেশ সময় বুধবার (১৬ আগস্ট) ভোর ৫টায় যুক্তরাষ্ট্রের সুবারু পার্কে অনুষ্ঠিত হয় ম্যাচটি। ম্যাচে টাটা মার্টিনোর শিষ্যরা ৪-১ ব্যবধানে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে। মায়ামির হয়ে গোল করেন জোসেফ মার্টিনেজ, লিওনেল মেসি, জর্দি আলবা ও ডেভিড রুইজ। ফিলাডেলফিয়ার হয়ে একমাত্র গোলটি করেন আলেজান্দ্রো বেদোয়া। ফিলাডেলফিয়াকে বিধ্বস্ত করা গোলে মায়ামি প্রথমবারের মতো কনকাকাফ চ্যাম্পিয়ন্স লিগেরও টিকিট পেয়ে গেছে।

 

 

এ ম্যাচের আগে দু’দলের মুখোমুখিতে শেষ ৫ ম্যাচের দুটিতে জয় ছিল ফিলাডেলফিয়া, দুটি ড্র করেছে এবং হেরেছিল একটিতে। এ ছাড়া নিজেদের শেষ ৭ ম্যাচের সব কটিতেই জিতেছে ফিলাডেলফিয়া। আর শেষ ৫ ম্যাচে ৪ গোল হজম করার বিপরীতে তারা করেছে ১১ গোল। অন্যদিকে ইন্টার মায়ামি নিজেদের শেষ ৫ ম্যাচে করেছে ১৭ গোল এবং হজম করেছে ৬ গোল।

এদিন বরাবরের মতোই ম্যাচের ৩ মিনিটে সের্গেই ক্রিভতসভের অ্যাসিস্ট থেকে গোল করে দলকে লিড এনে দেন জোসেফ মার্টিনেজ। এরপরই স্কোরশিটের নাম লেখান উড়তে থাকা লিওনেল মেসি। ম্যাচের ২০ মিনিটের সময় মার্টিনেজের পাস থেকে মায়ামির লিড দ্বিগুণ করেন বিশ্বকাপজয়ী তারকা। মেসির গোলটি ছিল ডি-বক্সের ৩০ মিটার দূর থেকে করা মাটি কামড়ানো দৃষ্টি নন্দন শটে।

 

এটি ছিল মায়ামি ক্যারিয়ারে মেসির ৯ম গোল। টানা ছয় ম্যাচে গোল পেলেন খুদে জাদুকর। সেই সঙ্গে লিগস কাপে অনন্য রেকর্ড গড়লেন এ তারকা। তার আগে লিগস কাপে টানা ছয় ম্যাচে গোলের রেকর্ড আর কারো কারো নেই। ইএসপিএন জানাচ্ছে মেসি ক্যারিয়ারে এর চেয়ে বেশি দূরত্ব থেকে মাত্র একটি গোলই করেছেন।

বিরতির আগে ইনজুরি টাইমে দলের লিড আরও বাড়ান বার্সেলোনা থেকে ফ্রি ট্রান্সফারে যোগ দেয়া স্প্যানিশ তারকা জর্দি আলবা। তাকে বলের যোগান দেন রবার্ট টেইলর। তিন গোলের লিড নিয়ে বিরতিতে যায় মায়ামি। দ্বিতীয়ার্ধে বেদোয়া স্বাগতিকদের হয়ে ব্যবধান কমান।

 

 

কিন্তু ডেবিড রুইজ শেষভাগে আরও বড় করেন মায়ামির জয়ের ব্যবধান। মাত্র কদিন আগে একই ব্যবধানে লিগ ম্যাচে হেরেছিল মায়ামি। গতবছরের ফানিালিস্ট ছিলো ফিলাডেলফিয়া।

ফাইনালে মায়ামির প্রতিপক্ষ মন্টেরে ও নাশভিলের মধ্যে যেকোনো এক দল। আজ সকালেই দ্বিতীয় সেমিফাইনালে মুখোমুখি হবে এ দুই দল। বাংলাদেশ সময় আগামী রোববার (২০ আগস্ট) ফাইনালে এ দু’দলের একটি দলের বিপক্ষে খেলবে মায়ামি।

 

 

সূত্র: চ্যানেল ২৪

Print Friendly and PDF