চট্টগ্রাম, শনিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২৩ , ৮ই আশ্বিন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

রাতে আসছে বিশ্বকাপ ট্রফি, কোথায়-কীভাবে দেখবেন

প্রকাশ: ৬ আগস্ট, ২০২৩ ৪:০৩ : অপরাহ্ণ

ওয়ানডে বিশ্বকাপের ১৩তম আসর শুরু হতে বাকি আর দুই মাস। তার আগে বিশ্ব ভ্রমণ করছে বিশ্বকাপের ট্রফি। এবারের আসরের স্বাগতিক দেশ এশিয়ার দেশ ভারত। বিশ্বকাপ ট্রফি যাত্রা শুরু করে স্বাগতিক দেশ ভারত থেকে। অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড, পাপুয়া নিউগিনি, যুক্তরাষ্ট্র, ওয়েস্ট ইন্ডিজ, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা ঘুরে বিশ্বকাপের ট্রফি আসছে বাংলাদেশে।

আজ রোববার (৬ আগস্ট) মধ্যরাতে ঢাকায় আসছে সেই ট্রফি। ৭ থেকে ৯ আগস্ট এই তিনদিন বাংলাদেশে থাকবে ট্রফিটি। বিশ্বকাপ ট্রফি বাংলাদেশের কোন কোন স্থানে নেয়া হবে সেই সূচিও জানিয়ে দিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।

তিন দিনের সফরে ট্রফি প্রদর্শনের তিনটি জায়গা ভাগ করা হয়েছে।

 

 

বিসিবির দেয়া তথ্য অনুযায়ী, ৭ আগস্ট অফিসিয়াল ফটোশ্যুট হবে পদ্মা বহুমুখী সেতুর মাওয়া প্রান্তে বিকেল ৩টায়। সেখান থেকে ফিরে হোটেলে রাখা হবে ট্রফিটি।

পরদিন ৮ আগস্ট সকাল ৯টা থেকে বেলা ১২টা পর্যন্ত মিরপুরের শেরে বাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে প্রদর্শন করা হবে ট্রফি। যেখানে জাতীয় দল, নারী দল, বর্তমান ও প্রাক্তন ক্রিকেটার, ক্রিকেট কর্মকর্তা এবং সংগঠক এবং ক্রীড়া সাংবাদিকদের ট্রফির সঙ্গে ছবি তোলার সুযোগ করে দেয়া হবে।

 

 

শেষের দিন (৯ আগস্ট) ঢাকার পান্থপথের বসুন্ধরা শপিং কমপ্লেক্সে সর্বসাধারণের জন্য ট্রফি প্রদর্শন করা হবে। সকাল ১১টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত জনসাধারণের জন্য উন্মুক্ত রাখা হবে বিশ্বকাপ ট্রফি। একটা নির্দিষ্ট দূরত্ব থেকে ভক্তরা ছবি তুলতে পারবেন। এ জন্য কোনো টিকিট লাগবে না।

বেশি সংখ্যক মানুষকে ট্রফি দেখা ও ছবি তোলার সুযোগ করে দিতেই বসুন্ধরা শপিং কমপ্লেক্সে ট্রফি প্রদর্শনের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে জানায় বিসিবি।

 

 

উল্লেখ্য, আগামী ৫ অক্টোবর আহমেদাবাদ নরেন্দ্র মোদী ক্রিকেট স্টেডিয়ামে গত বিশ্বকাপের দুই ফাইনালিস্ট ইংল্যান্ড এবং নিউজিল্যান্ডের ম্যাচ দিয়ে পর্দা উঠবে ২২ গজের ময়দানি লড়াই। বিশ্ব আসরের সবচেয়ে হাইভোল্টেজ ম্যাচ ভারত-পাকিস্তানের দ্বৈরথ ১৫ অক্টোবর হওয়ার কথা থাকলেও তা একদিন এগিয়ে করা হয়ে ১৪ অক্টোবর। শুধু এই ম্যাচের নয়, আরও কিছু ম্যাচের দিন বদলাতে পারে বলে জানা গিয়েছে। পাকিস্তানের অন্তত দু’টি ম্যাচের দিন বদলাতে পারে। ভারতীয় বোর্ড বা আইসিসি-র তরফে এখনও পর্যন্ত কোনও কিছু জানানো হয়নি।

 

 

১৫ অক্টোবর নবরাত্রি উৎসবের কারণে ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ আয়োজন করা কঠিন হত বলে জানানো হয়েছিল। আহমেদাবাদে বড় করে এই উৎসব পালন করা হয়। সেই কারণে ওই দিন ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ আহমেদাবাদে হলে নিরাপত্তার সমস্যা হতে পারত। এই কারণেই দিন বদল করা হয় বলে মনে করা হচ্ছে। পাকিস্তান-শ্রীলঙ্কা ম্যাচ হওয়ার কথা ছিল ১২ অক্টোবর। সেই ম্যাচের দিন বদল হয়েছে। পাকিস্তান-শ্রীলঙ্কা ম্যাচ হবে ১০ অক্টোবর।

 

 

এই ম্যাচের দিন বদলের কারণও ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ বলেই মনে করা হচ্ছে। ১২ অক্টোবর হায়দরাবাদে খেলে, ১৪ অক্টোবর আহমেদাবাদে ভারতের বিরুদ্ধে খেলতে নামা পাকিস্তানের বিরুদ্ধে কঠিন হতে পারত। সেই কারণে ১০ অক্টোবর খেলে নিতে চাইছে পাকিস্তান। এর ফলে তিন দিন বিশ্রামের সময় পাবেন বাবর আজমরা। এই দু’টি ম্যাচ ছাড়া আরও কিছু ম্যাচের দিন বদলে হতে পারে বলে জানা গিয়েছে। ভারতীয় বোর্ডের তরফে আরও এক বার বিশ্বকাপের সূচি প্রকাশিত করা হতে পারে।

 

 

সূত্র – চ্যানেল২৪

Print Friendly and PDF