চট্টগ্রাম, সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪ , ২রা বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ভূগর্ভস্থ পানি কমায় পাল্টে যাচ্ছে পৃথিবীর অক্ষ

প্রকাশ: ২৪ জুলাই, ২০২৩ ৫:৫৩ : অপরাহ্ণ

মাটির তলদেশ থেকে ক্রমাগত পানি তুলতে তুলতে পৃথিবীর আবর্তনের অক্ষ বদলে যাচ্ছে। সম্প্রতি ‘জিওফিজিক্যাল রিসার্চ লেটারস’ জার্নালে প্রকাশিত এক গবেষণায় এ তথ্য উঠে এসেছে। এতে বলা হয়েছে, ভূগর্ভস্থ পানি তুলে নেয়ার কারণে ও সমুদ্রপৃষ্ঠের উচ্চতা বেড়ে যাওয়ায় প্রতি বছর এই গ্রহের অক্ষ ৪ দশমিক তিন ছয় সেন্টিমিটার করে পূর্ব দিকে সরে যাচ্ছে। মাটির নিচ থেকে বিপুল পরিমাণ পানি তুলে নেয়া সমুদ্রের জলস্তর বৃদ্ধির অন্যতম কারণ বলেও গবেষণাপত্রে উল্লেখ রয়েছে।

 

 

ভূগর্ভস্থ পানি ব্যবহারের অভ্যাস মানুষের বহুদিনের। খাওয়া, ধোওয়া থেকে শুরু করে কৃষিতে সেচের কাজ মাটির নীচের পানি দিয়েই চলে। তবে, অনবরত ভূগর্ভস্থ পানি তুলে আনার ফলে পৃথিবীর অক্ষ তার বর্তমান অবস্থান থেকে সরে যাচ্ছে।

সম্প্রতি ‘জিওফিজিক্যাল রিসার্চ লেটারস’ জার্নালে প্রকাশিত একটি গবেষণায় বলা হয়েছে, ১৯৯৩ থেকে ২০১০ সালের মধ্যে প্রায় ২১৫০ গিগাটন ভূগর্ভস্থ পানি তোলা হয়েছে। এবং প্রতি বছর এই গ্রহের অক্ষ ৪ দশমিক তিন ছয় সেন্টিমিটার করে পূর্ব দিকে সরে যাচ্ছে। এই সরে যাওয়ার জন্য দায়ী সমুদ্রপৃষ্ঠের উচ্চতা বৃদ্ধিও। সেচ এবং মিঠা পানির চাহিদা মেটানোর জন্য মাটির নীচ থেকে যে পানি তোলা হয়, তা শেষমেশ সমুদ্রে গিয়ে মেশে।যা সমুদ্রপৃষ্ঠের উচ্চতা বৃদ্ধির অন্যতম কারণ।

 

 

গবেষণাটির সঙ্গে যুক্ত রয়েছেন দক্ষিণ কোরিয়ার সিউল ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি, অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্ন বিশ্ববিদ্যালয়, হংকং পলিটেকনিক ইউনিভার্সিটি ও আমেরিকার ইউনিভার্সিটি অফ টেক্সাসেরবিজ্ঞানীরা। পৃথিবীর অক্ষের অবস্থান সম্পর্কিত ১৭ বছরের নানা তথ্য বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে, পৃথিবীর অক্ষের পরিবর্তনের জন্য অন্যতম দায়ী ভূগর্ভস্থ জল সেচ ও সমুদ্রের জলস্তর বৃদ্ধি।

তবে, বিজ্ঞানীদের দলটি বলছে, পৃথিবীর অক্ষের যে পরিমাণ স্থানবদল ঘটেছে, তা খুবই সামান্য। তাই মানব জীবনে এর প্রভাব এখনই বোঝা সম্ভব নয়।

 

 

সূত্র – বৈশাখী  অনলাইন

Print Friendly and PDF