চট্টগ্রাম, মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪ , ১০ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চট্টগ্রাম-১০ আসনের উপনির্বাচনে নৌকার প্রার্থী মহিউদ্দিন বাচ্চু

প্রকাশ: ৪ জুলাই, ২০২৩ ৩:২৬ : অপরাহ্ণ

জাতীয় সংসদের চট্টগ্রাম-১০ আসনের উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়েছেন চট্টগ্রাম মহানগর যুবলীগের সাবেক আহ্বায়ক মহিউদ্দিন বাচ্চু।

আজ সোমবার রাতে গণভবনে দলের মনোনয়ন বোর্ডের সভা শেষে একথা জানান আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। দলীয় সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয় আওয়ামী লীগের সংসদীয় বোর্ডের এই সভা।

 

 

এর আগে গেল ২৬শে জুন পর্যন্ত চট্টগ্রাম-১০ আসনের উপনির্বাচনে অংশ নিতে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন ফরম কেনেন ২৯ জন প্রার্থী।

নির্বাচন কমিশনের ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী, মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ সময় চৌঠা জুলাই। মনোনয়নপত্র বাছাই হবে ৬ই জুলাই। মনোনয়ন সংক্রান্ত আপিল দায়ের করা যাবে ৭ই জুলাই  থেকে ৯ই জুলাই পর্যন্ত। সেই আপিল নিষ্পত্তি হবে ১০ই জুলাই থেকে ১১ই জুলাই। প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ দিন ১২ই জুলাই। ১৩ই জুলাই প্রতীক বরাদ্দ হওয়ার কথা রয়েছে। এবং আগামী ৩০ শে জুলাই এ আসনের উপনির্বাচনে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

 

 

চট্টগ্রাম-১০ আসনের উপনির্বাচনে অংশ নিতে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেন মোট ২৯ জন প্রার্থী। এরা হলেন, চট্টগ্রাম মহানগর যুবলীগের সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক ফরিদ মাহমুদ, সাবেক আহ্বায়ক মোহাম্মদ মহিউদ্দিন বাচ্চু, মহানগর আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য মোহাম্মদ শফর আলী, একেএম বেলায়েত হোসেন, চার নম্বর আগ্রাবাদ ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক মোহাম্মদ রেজওয়ান, মহানগর আওয়ামী লীগের সদস্য সাইফুদ্দি খালেদ, মোহাম্মদ দেলোয়ার হোসেন ভূঁইয়া, পাহাড়তলী থানা আওয়ামী লীগের সদস্য ও প্রয়াত সংসদ সদস্য আফছারুল আমীনের ভাই মোহাম্মদ এরশাদুল আমীন, স্ত্রী কামরুন নেছা, ছেলে মোহাম্মদ ফয়সাল আমীন, মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বদিউল আলম, ২৪ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের প্রাথমিক সদস্য মোহাম্মদ জাবেদ নজরুল ইসলাম, পাহাড়তলী থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ আসলাম হোসেন ও মহানগর ছাত্রলীগের সাবেক স্টিয়ারিং কমিটির সদস্য মোহাম্মদ অহীদ সিরাজ চৌধুরী।

 

 

এছাড়া আরও মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেন মহানগর আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ সম্পাদক মোহাম্মদ হেলাল উদ্দীন চৌধুরী, মহানগর আওয়ামী লীগের সদস্য মোহাম্মদ আব্দুল লতিফ, সদরঘাট থানা আওয়ামী লীগের সদস্য মোহাম্মদ রাশেদুল হাসান, ডবলমুরিং থানা আওয়ামী লীগের প্রাথমিক সদস্য মোহাম্মদ এমদাদুল ইসলাম, কেন্দ্রীয় মহিলা লীগের আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক রোকসানা পারভীন, মহানগর আওয়ামী লীগের মোহাম্মদ খোরশেদ আলম, যুবলীগের সাবেক প্রেসিডিয়াম সদস্য সৈয়দ মাহমুদুল হক ও মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক কেবিএম শাহজাহান, দক্ষিণ কাট্টলী ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সদস্য মোহাম্মদ আরিফুল আমীন, চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য শেখ মোহাম্মদ শফিউল আজম, এনায়েত বাজার আওয়ামী লীগের প্রাথমিক সদস্য আহমেদ ফয়সাল চৌধুরী, চট্টগ্রাম মহানগর মহিলা আওয়ামী লীগের সাবেক ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক রেহানা বেগম রেনু ও ১৪ নম্বর লালখান বাজার ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সদস্য আবুল ফজল কবির আহমেদ।

 

 

চট্টগ্রাম-১০ আসনটি চট্টগ্রাম মহানগরীর ডবলমুরিং, পাহাড়তলী ও হালিশহর থানা এলাকা নিয়ে গঠিত। চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের ৮, ১১, ১২, ১৩, ১৪, ২৪, ২৫ ও ২৬ নম্বর ওয়ার্ড নিয়ে চট্টগ্রাম-১০ আসন। ২০০৮, ২০১৪ ও ২০১৮ সালের সংসদ নির্বাচনে আসনটি থেকে নৌকা প্রতীক নিয়ে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন আফছারুল আমীন। আওয়ামী লীগের প্রবীণ এই নেতা ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে গেল দোসরা জুন মারা যান। এরপর আসনটি শূন্য ঘোষণা করা হয়।

 

 

সূত্র – বৈশাখী  অনলাইন

Print Friendly and PDF