চট্টগ্রাম, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪ , ১৩ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ঝক্কি কমবে ভারতে বাংলাদেশি পর্যটকদের, টাকা-রুপি ডেবিট কার্ড চালুর ঘোষণা

প্রকাশ: ১৯ জুন, ২০২৩ ৫:২৫ : অপরাহ্ণ

ভারতে বাংলাদেশি পর্যটক চোখে পড়ার মতো। দেশটিতে নানা প্রয়োজনেই বাংলাদেশের মানুষ ভ্রমণ করে থাকে। বাংলাদেশি পর্যটকরা বৈধভাবে ডলার নিয়ে যেতে পারে ভারতে। মাঝে মাঝে মুদ্রা বিনিময় কেন্দ্রে ডলার রুপিতে রূপান্তর করতে ঝামেলা পোহাতে হয় বাংলাদেশি পর্যটকদের। তবে এবার সুখবর দিলো বাংলাদেশ ব্যাংক।

আগামী সেপ্টেম্বর মাস থেকে দেশে টাকা-রুপির ডেবিট কার্ড চালু করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় ব্যাংক। এ কার্ড দিয়ে দেশের ভেতরে টাকা দিয়ে কেনাকাটাসহ বিভিন্ন বিল পরিশোধ করা যাবে এবং পাশাপাশি ভারত ভ্রমণের সময় এ কার্ড দিয়েই ভ্রমণ কোটায় ১২ হাজার ডলার খরচ করা যাবে।

রোববার (১৮ জুন) ২০২৩-২৪ অর্থবছরের প্রথমার্ধের জন্য নতুন মুদ্রানীতি ঘোষণার সময় এ তথ্য জানান বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর আব্দুর রউফ তালুকদার।

গভর্নর বলেন, আমরা টাকার একটি পে-কার্ড চালু করছি। এটাকে ভারতের রুপির সঙ্গে সংযুক্ত করে দেব। এ কার্ড থাকলে গ্রাহকরা বাংলাদেশে ডেবিট কার্ড হিসেবে ব্যবহার করতে পারবেন। যেকোনো কেনাকাটা করতে পারবেন। আবার যখন ভারতে যাবেন তখনও এ কার্ড দিয়েই ভ্রমণ কোটায় ১২ হাজার ডলার খরচ করতে পারবেন।

 

 

তিনি বলেন, দুবার মানি চেঞ্জে যে লস হচ্ছে, তা আর হবে না। অর্থাৎ ভ্রমণে যেতে হলে প্রথমে টাকা থেকে ডলারে কনভার্ট করতে হয়, পরে ভারতে গিয়ে ডলার রুপিতে কনভার্ট করতে হয়। টাকার পে-কার্ড নিলে দুইবার মানি চেঞ্জ করতে হবে না। এতে করে কমপক্ষে ৬ শতাংশের মতো খরচ কমবে।

তিনি আরও বলেন, ভারতে প্রতি বছর অনেক বাংলাদেশি পর্যটক ঘুরতে যান। তাদের জন্য এ কার্ড অনেক সুবিধাজনক হবে।

বাংলাদেশ ও ভারত তাদের দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য লেনদেনের একটি অংশ নিজ নিজ মুদ্রায় নিষ্পত্তি করতে একটি চুক্তিতে পৌঁছেছে জানিয়ে গভর্নর আব্দুর রউফ তালুকদার বলেন, এ চুক্তির লক্ষ্য ডলারের রিজার্ভের ওপর চাপ কমানো। ভারত থেকে বাংলাদেশের রপ্তানি আয় আসে প্রায় ২ বিলিয়ন ডলার; এই পরিমাণ বাণিজ্য লেনদেন রুপিতে নিষ্পত্তি করা হবে।

 

 

সূত্র – চ্যানেল২৪

Print Friendly and PDF