চট্টগ্রাম, সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪ , ২রা বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সবজির বাজারে স্বস্তি থাকলেও মাছের বাজারে আগুন

প্রকাশ: ১৬ জুন, ২০২৩ ৩:৫৮ : অপরাহ্ণ

নানা রকম গ্রীষ্মকালীন সবজিতে ভরে গেছে  বাজারগুলো। তাই সবজিতে ফিরেছে কিছুটা স্বস্তি। তবে বাড়তি দামেই বিক্রি হচ্ছে মাছ ও মাংস।

শুক্রবার (১৬ জুন) বিভিন্ন বাজার ঘুরে দেখা গেছে, লম্বা বেগুন প্রতিকেজি বিক্রি হচ্ছে ৪০-৫০ টাকা, গোল বেগুন ৫০-৬০ টাকা, পেঁপে ৩০-৪০ টাকা, করলা ৫০-৬০ টাকা, চিচিঙ্গা বিক্রি হচ্ছে ৫০-৬০ টাকা, ঢেঁড়শ ৪০-৫০ টাকা, মান ও সাইজভেদে লাউ ৫০-৭০ টাকা, জালি ৪০-৬০ টাকা, ধুন্দল ৫০-৬০ টাকা, কচুর লতি বিক্রি হচ্ছে ৭০-৮০ টাকায় বিক্রি হতে দেখা গেছে। যা গেল সপ্তাহে প্রায় একই দামে বিক্রি হয়েছে, দু-একটি সবজিতে ১০-৫০ টাকা কমেছে। তার আগের সপ্তাহে আরও চড়া ছিল এসব সবজির দাম।

 

 

এদিকে ভারতীয় পেঁয়াজে সয়লাব বাজার। আমদানি শুরুর পর থেকে এসব ভারতীয় পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৫০-৬০ টাকা কেজি। দেশি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৭৫-৮০ টাকা। যা ১০ দিন আগে ১০০ টাকা বিক্রি হয়েছে। কাঁচা মরিচ বিক্রি হচ্ছে ১২০ টাকা কেজি।অপরদিকে অস্বস্তি রয়েই গেছে মাছ ও মাংসের বাজারে। গেল সপ্তাহের মতোই ব্রয়লার মুরগী বিক্রি হচ্ছে ২০০-২১০ টাকা কেজি, সোনালি ২৮০-২৯০ টাকা। গরুর মাংস ৮০০-৮৫০ টাকা কেজিতে বিক্রি হচ্ছে।

বেড়েছে মাছের দাম। বাজারে তেলাপিয়া ও পাঙাশ মাছের দাম এখন প্রতি কেজি ২২০ থেকে ২৩০ টাকা। এক সপ্তাহ আগেও যা ছিল ২০০ থেকে ২১০ টাকার মধ্যে। অন্য মাছের মধ্যে মাঝারি ও বড় আকারের চাষের রুই, কাতলা ও মৃগেল মাছের দাম প্রতি কেজি ৩২০ থেকে ৪০০ টাকা। এসব মাছের দামও সপ্তাহের ব্যবধানে কেজিতে ৩০-৪০ টাকা পর্যন্ত বেড়েছে।এছাড়াও পাবদা, টেংরা, কই, বোয়াল, চিতল, আইড় ও ইলিশ মাছের দাম সাধারণ নাগালের বাইরে চলে যাচ্ছে।

সূত্র – চ্যানেল২৪

Print Friendly and PDF