চট্টগ্রাম, শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪ , ৭ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মিয়ানমারে যেতে ইচ্ছুক রোহিঙ্গাদের খাবার বন্ধ করলো ইউএনএইচসিআর

প্রকাশ: ৬ জুন, ২০২৩ ১১:১৫ : পূর্বাহ্ণ

মিয়ানমারে প্রত্যাবাসনের জন্য রাজি হওয়া ২৩ রোহিঙ্গার খাবার বন্ধ করে দিয়েছে জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থা ইউএনএইচসিআর। সোমবার (৫ জুন) সকাল থেকে এসব রোহিঙ্গার খাবার সরবরাহ বন্ধ করে দেয় সংস্থাটি।

শরণার্থী কমিশন সূত্র থেকে জানা গেছে, স্বেচ্ছায় মিয়ানমারে ফেরত যেতে ইচ্ছুক ৪ পরিবারের ২৩ রোহিঙ্গা গত ২৪ মে ভাসানচর থেকে কক্সবাজার আসেন। এরপর তাদের রাখা হয় উখিয়ার ট্রানজিট ক্যাম্পে। সেখানে গত ২৪ মে থেকে এসব রোহিঙ্গাদের খাবার দিয়ে আসছিল ইউএনএইচসিআর।

 

 

কিন্তু এদিন সকাল থেকে হঠাৎ খাবার সরবরাহ বন্ধ করে দেয় জাতিসংঘের এ সংস্থা। এর ফলে চরম বেকায়দায় পড়েছে রোহিঙ্গারা।

ভুক্তভোগী রোহিঙ্গাদের মধ্যে মোহাম্মদ হাসান নামে একজন জানান, প্রত্যাবাসন শুরু করার কথা বলায় তারা মিয়ানমারে যাওয়ার জন্য রাজি হয়। পরে তাদের ভাসানচর থেকে নিয়ে আসা হয় উখিয়ার ট্রানজিট ক্যাম্পে। এতদিন খাবার দিলেও এদিন হঠাৎ বন্ধ করে দেয়। এখন তারা কি খাবেন, কোথায় যাবেন তা নিয়ে চরম দুশ্চিন্তায় পড়েছেন।

 

 

শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনার মোহাম্মদ মিজানুর রহমান জানিয়েছেন, মিয়ানমারে প্রত্যাবাসনের জন্য পাইলট প্রকল্পের অন্তর্ভুক্ত হিসেবে ২৪ রোহিঙ্গাকে নিয়ে আসা হয়। তাদের খাবার  দিয়ে আসছিল ইউএনএইচসিআর। কিন্তু কেন হঠাৎ বন্ধ করে দিয়েছে সেটা বুঝে আসছে না। তারা ইউএনএইচসিআরসহ আরো কয়েকটি সংস্থার সঙ্গে যোগাযোগ করছেন বলে জানান।

এদিকে ইউএনএইচসিআরের কর্মকর্তা মোস্তফা মোহাম্মদ সাজ্জাদ জানান, বিষয়টি খোঁজখবর নিয়ে সকালে (মঙ্গলবার) এ প্রতিবেদককে বিস্তারিত জানাবেন।

 

 

এদিকে ১১৭৬ জন রোহিঙ্গাকে প্রত্যাবাসনের জন্য পাইলট প্রকল্প নিয়েছে মিয়ানমার সরকার। ইতোমধ্যে দুই দফায় মিয়ানমারের প্রতিনিধি দল টেকনাফের রোহিঙ্গা ক্যাম্পে এসে তালিকাভুক্ত রোহিঙ্গাদের যাচাই-বাছাই করে গেছে। মাঝখানে ২০ সদস্যের রোহিঙ্গাও মিয়ানমারে প্রত্যাবাসনের পরিবেশ দেখতে গিয়েছিলেন। কিন্তু এর মধ্যে কিছু রোহিঙ্গা শর্ত দিয়ে বসায় প্রত্যাবাসন শুরু হতে কিছুটা বিলম্ব হচ্ছে।

 

 

সূত্র – চ্যানেল২৪

Print Friendly and PDF