চট্টগ্রাম, রোববার, ২৬ মে ২০২৪ , ১২ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মহাকাশ অভিযাত্রা ৮ দিন পর পৃথিবীতে ফিরলেন সৌদি নারী

প্রকাশ: ৩১ মে, ২০২৩ ২:২০ : অপরাহ্ণ

টানা ৮ দিন মহাকাশে অবস্থানের পর পৃথিবীতে ফিরে এসেছেন সৌদি আরবের নারী নভোচারী রায়ানাহ বারনাভিসহ চার জন।বারনাভির সঙ্গে মিশন থেকে ফিরেছেন সৌদির এক পুরুষ নভোচারী। তার নাম আলী আল-কারনি। তিনি পেশায় যুদ্ধবিমানের পাইলট।স্থানীয় সময় গত রোববার (২২ মে) যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডা থেকে স্পেসএক্স ফ্যালকন ৯ রকেটে করে আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনের (আইএসএস) উদ্দেশে যাত্রা করেন তারা।

এই মিশনে এবার যোগ দেন সৌদি আরবের দুই নভোচারী। সৌদির এই দুই মহাকাশচারীর একজন রায়ানাহ বারনাভি। তিনি একজন স্তন ক্যানসার গবেষক। এছাড়া তিনি হলেন মহাকাশ ভ্রমণে যাওয়া সৌদির প্রথম কোনো নারী।

 

 

আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনে ৮ দিন বিভিন্ন বৈজ্ঞানিক পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালান এ নভোচারীরা।যুক্তরাষ্ট্রের স্থানীয় সময় বুধবার ফ্লোরিডাতে ফেরেন তারা।তাদের বহনকারী স্পেসএক্সের ক্রু ড্রাগন ক্যাপসুল ফ্লোরিডার মেক্সিকো উপসাগরের উপকূলীয় শহর পানামা সিটিতে অবতরণ করে। মহাকাশ থেকে পৃথিবীতে ফিরতে তাদের সময় লাগে ১২ ঘণ্টা।

 

 

ড্রাগন ক্যাপসুলের দরজা খোলার সঙ্গে সঙ্গে `থাম্পবস আপ` দেখিয়ে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেন ওই নারী। সেখানে উপস্থিত অন্যদের সহায়তায় ক্যাপসুল থেকে একে একে নেমে আসেন চার নভোচারী। এর পর তারা হেলিকপ্টারে আরোহন করেন। তাদেরকে উড়োজাহাজে করে কেপ কানাভেরালে নিয়ে যা্ওয়া হবে। সেখানে তারা তাদের স্বজনদের সঙ্গে মিলিত হবেন।

 

 

অ্যাক্সিওম মিশন ২ (অ্যাক্স-২) নামের এই মিশনের অপর দুই সদস্য হলেন পেগি হুইটসন ও জন শফনার। পেগি মার্কিন মহাকাশ সংস্থা নাসার একজন সাবেক মহাকাশচারী। তিনি চতুর্থবারের মতো আইএসএসে যাচ্ছেন।

শফনার পেশায় ব্যবসায়ী। যুক্তরাষ্ট্রের টেনেসি অঙ্গরাজ্যের এই ব্যক্তি মিশনটিতে পাইলট হিসেবে কাজ করেন।

আগে একবার সৌদির এক নভোচারী মহাকাশ অভিযানে গিয়েছিলেন। তিনি প্রিন্স সুলতান বিন সালমান বিন আবদুল আজিজ। সৌদির বিমানবাহিনীর সাবেক এই পাইলট ১৯৮৫ সালে যুক্তরাষ্ট্র আয়োজিত মহাকাশ ভ্রমণে অংশ নিয়েছিলেন।

সৌদি আরব ২০১৮ সালে সৌদি স্পেস কমিশন প্রতিষ্ঠা করে। মহাকাশে নভোচারী পাঠানোর জন্য সংস্থাটি গত বছর একটি প্রকল্প চালু করে।

 

 

সূত্র: আরব নিউজ

Print Friendly and PDF