চট্টগ্রাম, বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪ , ২রা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বাংলাদেশের স্বাস্থ্য খাতের ভবিষ্যতের জন্য ৮টি পরামর্শ হেনরি বি পেরির

প্রকাশ: ২৮ মে, ২০২৩ ১১:৫৮ : পূর্বাহ্ণ

স্বাস্থ্যে বাংলাদেশের সাফল্য উল্লেখযোগ্য। এ সাফল্য উদযাপন করার মতো। ৫০ বছরে যেভাবে সাফল্য এসেছে ভবিষ্যতে একইভাবে সাফল্য নাও আসতে পারে। ভবিষ্যতের সমস্যা মোকাবিলায় অন্তত আটটি কঠিন কাজ বাংলাদেশকে হাতে নিতে হবে।

 

 

শনিবার (২৭ মে) আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে আয়োজিত বাংলাদেশের স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষে বাংলাদেশ হেলথ ওয়াচ গত বছর ‘স্বাধীনতার পঞ্চাশ বছর: বাংলাদেশের স্বাস্থ্য খাতের বিকাশ’ বইয়ের ইংরেজি সংস্করণ প্রকাশ অনুষ্ঠানে দেশের স্বাস্থ্য খাত নিয়ে এ কথা বলেন যুক্তরাষ্ট্রের জনস হপকিন্স ব্লুমবার্গ স্কুল অব পাবলিক হেলথের আন্তর্জাতিক স্বাস্থ্য শাখার জ্যেষ্ঠ সহযোগী হেনরি বি পেরি।

এই বইটির বাংলা ভার্সনটি প্রকাশ করেছিল প্রথমা প্রকাশন। এর সঙ্গে যুক্ত ছিলেন ১০৩ জন দেশি ও প্রবাসী বিজ্ঞানী, গবেষক, শিক্ষক, চিকিৎসক ও সাংবাদিক। এ সময় বাংলাদেশের স্বাস্থ্য খাতের ভবিষ্যতের জন্য হেনরি বি পেরি আটটি সুপারিশ করেন।

সুপারিশগুলো হলো

  • উদ্ভাবন।
  • স্বাস্থ্য খাতে অর্থায়ন বৃদ্ধি।
  • একটি দৃঢ় প্রাথমিক স্বাস্থ্যসেবা পদ্ধতি গড়ে তোলা।
  • কমিউনিটি স্বাস্থ্যকর্মীদের শক্ত পেশাদার হিসেবে গড়ে তোলা।
  • অর্থায়ন বিকেন্দ্রীকরণ ও প্রাথমিক স্বাস্থ্যসেবার ক্ষমতা বৃদ্ধি।
  • বিপর্যয়মূলক স্বাস্থ্য ব্যয় মোকাবিলার জন্য সব নাগরিকের জন্য বিমার ব্যবস্থা।
  • গবেষণা জোরদার করা।
  • দৃঢ় নাগরিক নজরদারি ব্যবস্থা গড়ে তোলা।

 

নাগরিক সংগঠন বাংলাদেশ হেলথ ওয়াচ, প্রকাশনা সংস্থা ইউনিভার্সিটি প্রেস লিমিটেড, দাতা সংস্থা দ্য এশিয়া ফাউন্ডেশন, সুইডিস দূতাবাস ও ব্র্যাক জেমস পি গ্রান্ট স্কুল অব পাবলিক হেলথ যৌথভাবে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

 

Print Friendly and PDF