চট্টগ্রাম, রোববার, ২১ এপ্রিল ২০২৪ , ৮ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

দ্বিমুখী সংকটে সেন্টমার্টিনের মানুষ

প্রকাশ: ১৬ মে, ২০২৩ ১০:৪২ : পূর্বাহ্ণ

দ্বিমুখী সংকটে সেন্টমার্টিনের মানুষ। ঘূর্ণিঝড় মোখার প্রভাব কেটে গেলেও দ্বীপের বাসিন্দাদের নতুন দুশ্চিন্তা জীবিকা। ঝড়ে ব্যবসা-বাণিজ্য যেমন ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে, তেমনি কদিন পরই বন্ধ হচ্ছে সাগরে মাছ ধরা।

ঘূর্ণিঝড় মোখা আঘাত হানার আগে যারা দ্বীপ ছেড়ে গিয়েছিলেন, পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়ার পর তারাই ফিরেছেন সেন্টমার্টিনে। তবে সঙ্গে একরাশ দুশ্চিন্তা নিয়ে।

সেন্টমার্টিনের সব মানুষই সাগরে মাছ ধরেন আর পর্যটনকেন্দ্রিক ক্ষুদ্র ব্যবসার মাধ্যমে তাদের জীবিকা চলে। কিন্তু মাথা গোজার ঠাঁই কেড়ে নেয়ার পাশাপাশি ঘূর্ণিঝড় আঘাত হেনেছে তাদের জীবিকায়ও। ব্যবসা-বাণিজ্য যেমন ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে তেমনি ২০ মে থেকে দুই মাসের জন্য বন্ধ হচ্ছে সাগরে মাছ ধরা। এতে দিশেহারা দ্বীপের মানুষ।

 

 

তারা বলছেন, ঝড়ের পর মাছ ধরা বন্ধ হলে এখানে মানুষ না খেয়ে থাকবে। সামনে বড় ধরনের বিপদ আমাদের।

ঝড়ে ১২শ’র মতো বাড়িঘর বিধ্বস্ত হয়েছে। ক্ষয়ক্ষতি দেখতে গিয়ে জেলা প্রশাসক মো. শাহীন ইমরান জানান, বাড়িঘর মেরামতের পাশাপাশি দ্বীপবাসীর জীবিকা সচল রাখার উদ্যোগ নেবে প্রশাসন।

তিনি বলেন, যার নগদ প্রয়োজন তাকে নগদ দেয়া হবে। যার গৃহ নির্মাণের জন্য ঢেউটিন দরকার তাকে আমরা ঢেউটিন দিব। যার ত্রাণসামগ্রী প্রয়োজন তাকে আমরা ত্রাণসামগ্রী দিব। ক্ষতিগ্রস্ত একজন মানুষও সরকাররে এ ত্রাণ সহায়তা থেকে বঞ্চিত হবে না।

উল্লেখ্য, দেশের একমাত্র প্রবাল দ্বীপ সেন্টমার্টিনে বসবাস করেন প্রায় ১০ হাজার মানুষ।

 

 

 

সূত্র – চ্যানেল২৪

Print Friendly and PDF