চট্টগ্রাম, রোববার, ২১ এপ্রিল ২০২৪ , ৮ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

১ সপ্তাহে সয়াবিনের দাম সর্বনিম্ন

প্রকাশ: ১২ মে, ২০২৩ ৪:৪৪ : অপরাহ্ণ

আন্তর্জাতিক বাজারে সয়াবিনের দাম আরও কমেছে। বৃহস্পতিবার (১১ মে) শিকাগো বোর্ড অব ট্রেডে (সিবিওটি) তেলবীজটির সরবরাহ মূল্য আরেক দফা হ্রাস পেয়েছে। গত ১ সপ্তাহের মধ্যে যা সর্বনিম্ন।

 

 

 

 

 

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের বরাত দিয়ে বিজনেস রেকর্ডারের এক প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানা গেছে। এতে বলা হয়, যুক্তরাষ্ট্রে দ্রুতগতিতে সয়াবিন রোপণ করা হচ্ছে। এতে তেলবীজটির দর চাপে পড়েছে।

সিঙ্গাপুরভিত্তিক এক ব্যবসায়ী বলেন, যুক্তরাষ্ট্রে সয়াবিন চাষের জন্য অনুকূল আবহাওয়া বিরাজ করছে। ফলে জোরকদমে বীজ রোপণ করছেন দেশটির কৃষকরা। এতে চলতি বছর মার্কিন মুলুকে বাম্পার ফলনের আশা করা হচ্ছে।

 

 

 

 

তিনি আরও বলেন, এবার অন্যতম শীর্ষ উৎপাদরকারী ও রপ্তানিকারক ব্রাজিলে রেকর্ড সয়াবিন উৎপাদন হচ্ছে। স্বাভাবিকভাবেই আন্তর্জাতিক বাজারে রপ্তানি বাড়াচ্ছে দেশটি। একই পথে হাঁটবে যুক্তরাষ্ট্র। তাতে বিশ্ববাজারের ব্যাপক সরবরাহ বৃদ্ধির সম্ভাবনা জেগেছে। মূলত এতেই তেলবীজটির দরপতন ঘটছে।

 

 

 

 

 

 

এ কার্যদিবস শেষে সিবিওটিতে সবচেয়ে সক্রিয় সয়াবিনের চুক্তি মূল্য কমেছে শূন্য দশমিক ৫ শতাংশ। প্রতি বুশেলের দাম স্থির হয়েছে ১৩ দশমিক ৯৭ ডলারে। কর্মদিবসের শুরুতে যা ছিল ১৩ দশমিক ৯৫ ডলার। গত ৩ মে’র পর তা সবচেয়ে কম।

যুক্তরাষ্ট্রে দ্রুতগতিতে সয়াবিন রোপণ করা হচ্ছে। এছাড়া আগামীতে তেলবীজটি চাষের জন্য উপযোগী আবহাওয়ার পূর্বাভাস দেয়া হয়েছে। সাধারণত, এতে বিশ্ববাজার চাপে পড়েছে।

তবে উল্লেখযোগ্য উৎপাদনকারী আর্জেন্টিনায় সয়াবিন উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রার পূর্বাভাস কমানো হয়েছে। ২০২২/২০২৩ অর্থবছরে দেশটিতে ৬ দশমিক ৫ শতাংশ কমে ২১ দশমিক ৫ মিলিয়ন টন উৎপাদিত হবে। তীব্র খরায় দেশটিতে উৎপাদন ব্যাহত হবে।

 

 

 

 

 

এ পরিস্থিতিতে সয়াবিন আমদানি ব্যাপক হারে কমিয়ে দিয়েছে বিশ্বের শীর্ষ ক্রেতা চীন। দেশে উৎপন্ন ফসল ব্যবহারে জোর দিয়েছে তারা। তেলবীজটির বাজারে চাপে পড়ার এটিও মূখ্য কারণ।

 

 

 

 

সূত্র:চ্যানেল ২৪

 

 

Print Friendly and PDF