চট্টগ্রাম, শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪ , ৭ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নতুন নজির, একই জেলে বাবা-মেয়ে

প্রকাশ: ২ মে, ২০২৩ ১০:৪৫ : পূর্বাহ্ণ

গরুপাচারকাণ্ডে অভিযুক্ত হয়ে তিহারে বন্দি অনুব্রত মণ্ডল। বাবার পর মেয়ে সুকন্যারও ঠাঁই হলো সেখানেই।

বেশ কয়েকবার জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ডাকা সত্ত্বেও ইডি-র মুখোমুখি হননি সুকন্যা। তারপর গত বুধবার সুকন্যাকে গ্রেপ্তার করে ইডি। আদালতের নির্দেশ অনুযায়ী শনিবার পর্যন্ত তিনি ছিলেন ইডির হেফাজতে।

 

রোববার ( ৩০ এপ্রিল ) ভার্চুয়াল শুনানিতে দিল্লির রাউস অ্যাভিনিউ আদালতের বিচারক সুকন্যাকে ১২ দিন তিহার জেলে রাখার নির্দেশ দেন। ফলে বাবা, মেয়ে এখন একই জেলে। দুজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ, তারা বেআইনিভাবে বাংলাদেশে গরুপাচার করে কোটি কোটি টাকা আয় করেছেন।

 

 

আদালতে সুকন্যা বলেছেন, তিনি তিহারে দিনে দশ মিনিট করে বাবার সঙ্গে কথা বলতে চান। বান্ধবী সুতপার সঙ্গেও ফোনে কথা বলতে চান। আর জেলে যেন তাকে কিছু ধর্মগ্রন্থ দেয়া হয়। ইডির হেফাজতে সুকন্যার সঙ্গী ছিল দুটি বই। ‘শ্রীশ্রী মায়ের কথা’ এবং ‘স্বামী বিবেকানন্দের পত্রাবলী’।

কোনো বিষয়েই ইডি-র পক্ষ থেকে আপত্তি জানানো হয়নি। বিচারক বলেছেন, এক্ষেত্রে জেলের নিয়ম কার্যকর হবে এবং জেল কর্তৃপক্ষ সিদ্ধান্ত নেবে। বাবা-মেয়ে দুজনেই তিহারে থাকলেও আলাদা জায়গায় থাকবেন।

জেল কর্তৃপক্ষের অনুমতি নিয়ে সপ্তাহে একদিন বন্দি তার আত্মীয়দের সঙ্গে দেখা করতে পারবেন। সেক্ষেত্রে জেল কর্তৃপক্ষ অনুমতি দিলে সপ্তাহে একদিন বাবা-মেয়ের কথা হতে পারে। তাছাড়া ইডি বাবা, মেয়েকে একসঙ্গে বসিয়ে জেরা করতে পারে।

 

 

সূত্র: ডয়চে ভেলে

Print Friendly and PDF