চট্টগ্রাম, রোববার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪ , ১লা বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ওয়ানডে বিশ্বকাপে খেলতে ভারতকে নতুন শর্ত দিলো পাকিস্তান

প্রকাশ: ১২ এপ্রিল, ২০২৩ ১:৫৯ : অপরাহ্ণ

চলতি বছরের এশিয়া কাপ ও ওয়ানডে বিশ্বকাপ নিয়ে বেশ বিপাকে পড়েছে বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা (আইসিসি)। মূলত এশিয়া কাপের ১৬তম আসর পাকিস্তানে ও ওয়ানডে বিশ্বকাপের ১৩তম আসর অনুষ্ঠিত হবে ভারতে। এদিকে ভারত চায় না পাকিস্তানে এশিয়া কাপ খেলতে যেতে, তাদের চাওয়া নিরপেক্ষ ভেন্যুতে হোক এশিয়া কাপ। কিন্তু নাছোড়বান্দা পাকিস্তান। তারা চায় ভারত এসে খেলুক পাকিস্তানে। আর এখানেই শুরু হয়েছে বিপত্তির।

শেষ পর্যন্ত এশিয়া কাপ খেলতে ভারত পাকিস্তানে দল পাঠাবে কিনা আর অন্যদিকে একদিনের বিশ্বকাপের ম্যাচ খেলতে পাকিস্তান দল ভারতে আসবে কি না এই প্রশ্নের উত্তর এখনও অজানা।

 

 

এদিকে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড সিদ্ধান্ত নিয়েছে, এশিয়া কাপের জন্য পাকিস্তানে পাঠানো হবে না রোহিত শর্মাদের। তারপর থেকেই বিশ্বকাপে পাকিস্তানের ম্যাচ নিয়েও শুরু হয়েছে জল্পনা। আইসিসি সূত্রের খবর, ভারতে দল পাঠাতে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের আপত্তি না থাকলেও শহর নিয়ে কিছুটা পছন্দ-অপছন্দ রয়েছে তাদের। এমনই জানিয়েছে সংবাদ সংস্থা পিটিআই। খবর হিন্দুস্তান টাইমসক্রিকেটপাকিস্তান

 

 

ভারতের ১২টি শহরে হবে একদিনের বিশ্বকাপের ম্যাচগুলি। সব শহরে নাকি দল পাঠাতে রাজি নয় পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড। লিগ পর্বের ম্যাচগুলির জন্য পিসিবি কর্তারা আইসিসির কাছে তাদের পছন্দের কথা জানিয়েছেন। এশিয়া কাপ আয়োজন এবং একদিনের বিশ্বকাপে অংশগ্রহণ নিয়ে আইসিসি কর্তাদের সঙ্গে কিছু দিন ধরে আলোচনা চালাচ্ছেন পিসিবি চেয়ারম্যান নাজম শেঠি।

আইসিসির এক কর্মকর্তা বলেন, ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড বা ভারত সরকার পছন্দ করার সুযোগ দেবে কি না জানা নেই। সুযোগ থাকলে ভারতের দু’টি শহরে বিশ্বকাপের লিগ পর্বের ম্যাচগুলি খেলতে চায় পাকিস্তান। অতীত অভিজ্ঞতার ভিত্তিতে কলকাতা এবং চেন্নাইয়ে খেলতে তারা সব থেকে স্বাচ্ছন্দ বলে জানিয়েছে।

 

 

কারণ হিসাবে পিসিবি কর্তাদের দাবি অনুযায়ী এই দু’শহরের আতিথেয়তায় সব থেকে খুশি পাকিস্তানের ক্রিকেটাররা। নকআউট পর্বের ম্যাচের কেন্দ্র নিয়ে অবশ্য পাকিস্তানের ক্রিকেট কর্তারা কোনও পছন্দের কথা জানাননি বলে জানিয়েছেন আইসিসির ওই কর্মকর্তা।

 

 

বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্বে প্রতিটি দলকে খেলতে হবে ন’টি করে ম্যাচ। পাকিস্তানকে তাদের পছন্দ মতো জায়গায় ম্যাচ দিতে গেলে কলকাতা এবং চেন্নাইতে ন’টি ম্যাচ ভাগাভাগি করে দিতে হবে। তেমন হলে অন্য রাজ্যের ক্রিকেট সংস্থাগুলি আপত্তি তুলতে পারে। ম্যাচ বণ্টনের ক্ষেত্রেও সমস্যা হতে পারে।

 

 

আইসিসি চায় ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ হোক আহমেমদাবাদের নরেন্দ্র মোদী স্টেডিয়ামে। ১ লাখ ৩২ হাজার দর্শক আসনের স্টেডিয়ামে এই ম্যাচ হলে বাণিজ্যিকভাবে সব থেকে লাভবান হবে তারা। যদিও বিশ্বকাপ ফাইনালের কেন্দ্র হিসেবে আহমেদাবাদ আগেই চিহ্নিত হয়ে যাওয়ায় সেখানেই ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ হওয়া নিয়ে কিছুটা সংশয় রয়েছে।

 

 

কিছু দিন আগে আইসিসির জেনারেল ম্যানেজার ওয়াসিম খান জানিয়েছিলেন, বিশ্বকাপের ম্যাচগুলি বাংলাদেশের মাটিতে খেলতে চায় পাকিস্তান। তার সেই দাবি খারিজ করে দিয়েছিলেন পিসিবি চেয়ারম্যান। শেঠি জানিয়েছিলেন, এমন কোনও অনুরোধ তারা করেননি আইসিসিকে। এশিয়া কাপ খেলতে ভারতের পাকিস্তানে না যাওয়ার সিদ্ধান্ত এবং তার প্রেক্ষিতে বিশ্বকাপ নিয়ে পিসিবির অবস্থান প্রসঙ্গেই আলোচনা হয়েছে। তারা কোনও পছন্দের কথা জানাননি।

 

 

এদিকে সম্প্রতি এক সাক্ষাত্কারে পিসিবির চেয়ারম্যান নাজাম শেঠি বলেছেন যে, পাকিস্তানের সমর্থকরা চায় না মেন ইন গ্রিনরা ভারতে বিশ্বকাপ খেলুক যদি ভারত পাকিস্তানে এশিয়া কাপ খেলে প্রতিদান না দেয়।

শেঠি বলেন, আমি জানি ভারত পাকিস্তানে না এলে মানুষ চাইবে না আমরা ভারতে যাই। মানুষ চায় আমরা আমাদের মাটিতে দাঁড়াই এবং নির্দেশ না দেয়া।

Print Friendly and PDF