চট্টগ্রাম, রোববার, ২১ এপ্রিল ২০২৪ , ৮ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কিছু পত্রিকা উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে নেতিবাচক প্রতিবেদন করে: তথ্যমন্ত্রী

প্রকাশ: ১ এপ্রিল, ২০২৩ ১২:১৮ : অপরাহ্ণ

তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ অর্থনৈতিকভাবে এগিয়ে যাচ্ছে। সেটা অনেকের পছন্দ হয় না। তাই কিছু পত্রিকা উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে নেতিবাচক প্রতিবেদন প্রকাশ করে।

শুক্রবার (৩১ মার্চ) চট্টগ্রাম নগরীর দেওয়ানজী পুকুর পাড়ের বাড়িতে সমসাময়িক ইস্যুতে সাংবাদিকদের ব্রিফিংয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

হাছান মাহমুদ বলেন, দেশ এগিয়ে যাচ্ছে, দারিদ্র্য কমছে, প্রত্যেক মানুষের সমৃদ্ধি ও স্বচ্ছলতা এসেছে। বঙ্গবন্ধুকন্যার নেতৃত্বে এ অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি অনেকের পছন্দ হয় না। সেজন্য কিছু পত্রিকা উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে নেগেটিভ রিপোর্ট করে।

 

 

তিনি বলেন, বিদেশ থেকে কয়েকজন চিহ্নিত ব্যক্তি বিশেষ বাংলাদেশের বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালাচ্ছে। মানুষকে বিভ্রান্ত করার চেষ্টা করছে তারা। তবে এভাবে বাংলাদেশকে দমিয়ে রাখা যাবে না।

 

 

উদাহরণ দিয়ে তথ্যমন্ত্রী বলেন, পদ্মা সেতুতে অর্থায়ন করবে না বলে ঘোষণা দিয়েছিল বিশ্ব ব্যাংক। সেসময় কিছু পত্রিকা ব্যানার হেডলাইন করেছিল, পদ্মা সেতু আর হচ্ছে না। তবে আমরা নিজেদের টাকায় তা করেছি।

 

 

হাছান মাহমুদ বলেন, দেশ এগিয়ে নিতে অনন্য অবদান রাখে গণমাধ্যম। সাংবাদিকরা মানুষকে সঠিক তথ্য পেতে সহায়তা করেন। তাই যারা নেতিবাচক খবর প্রকাশ করে, তাদের বিষয়ে সতর্ক থাকতে হবে।

প্রথম আলোর সাংবাদিক শামসুজ্জামানের গ্রেপ্তার নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রসহ ১২ দেশের মিডিয়া জোট বিবৃতি দিয়েছে। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ১২ দেশের দূতাবাসের পক্ষ থেকে এক বিবৃতি তাদের ওয়েবসাইটে দেয়া হয়েছে। আপনারা ভারতের দিকে তাকান। সেদেশে বিবিসির কার্যালয়ে তল্লাশি চালানো হয়েছে।

 

 

প্রশ্ন তুলে তথ্যমন্ত্রী বলেন, সেটি নিয়ে কী এ ধরনের বিভিন্ন দেশ উদ্বেগ প্রকাশ করেছে কিংবা বিবৃতি দিয়েছে? দেয়নি, কারণ ভারত বড় দেশ। তাদের শক্তি সামর্থ্য বেশি। সেজন্য কেউ সেই সাহস পায়নি।

তিনি বলেন, আমাদের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে কূটনীতিকদের নাক গলানো উচিত নয়। প্রয়োজনে তাদের আচরণ সম্পর্কিত ভিয়েনা কনভেনশন স্মরণ করিয়ে দেয়া হবে।

 

 

হাছান মাহমুদ বলেন, সরকার গণমাধ্যমের স্বাধীনতা নিশ্চিত করেছে। সেটা অব্যাহত রাখতে আমরা বদ্ধপরিকর। কারণ, এর সঙ্গে রাষ্ট্রের ও গণতন্ত্রের বিকাশ জড়িত। কিন্তু স্বাধীনতার নামে কেউ অপসাংবাদিকতা করলে দেশের জনগণ তা মানবে না।

তিনি বলেন, সংবাদ পরিবেশনে সাংবাদিকতার নামে রাজনীতি করা সমীচীন নয়। আশা করি, সবাই এর সঙ্গে একমত হবেন।

 

সূত্র – চ্যানেল২৪

Print Friendly and PDF