চট্টগ্রাম, বুধবার, ২২ মে ২০২৪ , ৮ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে রিজওয়ানকে কাঁদিয়ে চ্যাম্পিয়ন আফ্রিদির লাহোর

প্রকাশ: ১৯ মার্চ, ২০২৩ ১১:৫৭ : পূর্বাহ্ণ

আরও একটি ফাইনাল, আরও ব্যর্থতা সঙ্গী হলো মোহাম্মদ রিজওয়ানের মুলতান সুলতানের। সেই সঙ্গে টানা দ্বিতীয়বারের মতো পাকিস্তান সুপার লিগের (পিএসএল) দ্বিতীয় শিরোপা ঘরে তুলেছে লাহোর কালান্দার্স। ব্যাট হাতে সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক হলেও এদিন দলের জন্য বড় ইনিংস খেলতে ব্যর্থ মুলতান অধিনায়ক রিজওয়ান।

শনিবার (১৮ মার্চ) লাহোরের গাদ্দাফি স্টেডিয়ামে টস জিতে আগে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় লাহোর কালান্দার্স। প্রথমে ব্যাট করতে নেমে আব্দু্ল্লাহ শফিকের ৬৫ ও অধিনায়ক শাহিন আফ্রিদির অপরাজিত ৪৪ রানে ভর করে নির্ধারিত ওভারে ৬ উইকেটে ২০০ রানের পুঁজি গড়ে লাহোর কালান্দার্স। জবাবে মুলতান সুলতান নির্ধারিত ওভারে ৬ উইকেটে ১৯৯ রানে গিয়ে থামে। দলের হয়ে সর্বোচ্চ রান আসে রিলে রুশোর ব্যাট থেকে। তিনি ৩২ বলে ৫২ রানের ইনিংস খেলেন। এছাড়াও শেষ দিকে খুশদিল শাহ ১২ বলে ২৫ রানের টর্নেডো ইনিংস উপহার দেন। তবুও শেষ পর্যন্ত দলের জয়ে বড় ভূমিকার রাখতে ব্যর্থ হন তিনি।

লাহোরের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে ইনিংসের শেষ বল পর্যন্ত খেলে ১৯৯ রানে আটকে যায় মুলতান। দলের ছয় ব্যাটার রান পেয়েছেন। এর মধ্যে রিলে রুশো ৩২ বলে ৫২ রান করেন। এছাড়া রিজওয়ান ৩৪, উসমান খান ১৮, পোলার্ড ১৯ ও টিম ডেভিড ২০ রান করেন। তবু খুশদিল শাহ ১২ বলে ২৫ ও আব্বাস আফ্রিদি ৬ বলে ১৭ রান করে দলকে জয়ের প্রান্তে তুলে নেন। কিন্তু শেষ বলে খুশদিল রান আউট হওয়ায় স্বপ্ন ভাঙে রিজওয়ানদের।

 

এক পর্যায়ে শেষ ওভারে জয়ের জন্য মুলতানের তাদের প্রয়োজন ছিল ১৩ রান। তবে তরুণ বোলার জামান খানের করা ওভারটিতে প্রথম পাঁচ বলে ৯ রান তুলতে পারে মুলতান। শেষ বলে সমীকরণ দাঁড়ায় ৪রান। খুশদীলের ব্যাটে ডাবলস নিতে পারলেও তৃতীয় রান নিতে গিয়ে রানআউট হন এই ব্যাটার। ১৯৯ রানে থামে মুলতান সুলতান্সের ইনিংস। ফাইনালের মতো ফাইনালে ১ রানের নাটকীয় জয় পায় শাহিন আফ্রিদিরা।

শাহিন আফ্রিদি বল হাতে ৪ ওভারে ৫১ রান দিলেও নিয়েছেন ৪ উইকেট। রশিদ খান ২টি, ডেভিড ভিসা একটি উইকেট লাভ করেন।

 

এর আগে টস জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে টেস্ট ব্যাটার আব্দুল্লাহ শফিক ৪০ বলে ৬৫ রানের ইনিংস খেলেন। তার আগে ওপেনার মির্জা বেগ ১৮ বলে ৩০ ও ফখর জামান ৩৪ বলে ৩৯ রান করেন। শেষদিকে শাহিন আফ্রিদি ১৫ বলে পাঁচ ছক্কা ও দুই চারে ৪৪ রানের বিধ্বংসী ইনিংস খেলেন। এতে করে লাহোরের সংগ্রহ ২০০ রানে গিয়ে ঠেকে।

 

মুলতানের হয়ে উসমান মীর ৩টি, আনোয়ার আলী, ইহসান উল্লাহ ও খুশদিল শাহ একটি করে উইকেট লাভ করেন। ম্যাচে অলরাউন্ড পারফরম্যান্সের জন্য প্লেয়ার অব দ্য ম্যাচের পুরস্কার পান লাহোর অধিনায়ক শাহিন শাহ আফ্রিদি। আর সিরিজ সেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কার পান মুলতানের ইহসানউল্লাহ।

 

সূত্র – চ্যানেল২৪

Print Friendly and PDF