চট্টগ্রাম, শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪ , ১০ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

আয়ারল্যান্ড চ্যালেঞ্জ নেয়ার আগে বাংলাদেশ কোথায় এগিয়ে?

প্রকাশ: ১৮ মার্চ, ২০২৩ ১১:৩৪ : পূর্বাহ্ণ

 

নিজেদের সেরা ক্রিকেট খেলা এবং জয়ের ধারা অব্যাহত রাখার লক্ষ্য নিয়ে আজ থেকে সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ শুরু করছে বাংলাদেশ। শনিবার (১৮ মার্চ) দুপুর ২টায় শুরু হওয়া ম্যাচটি, যা টি-স্পোর্টসে সরাসরি সম্প্রচার করা হবে।

 

সিরিজ নিয়ে বাংলাদেশের প্রধান কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহে বলেন, ‘ইংল্যান্ডের মতো আয়ারল্যান্ডকেও সম্মান করি আমরা। কিন্তু আমরা কোনো দলকে ভয় করি না। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে যেভাবে দলকে প্রস্তুত করেছিলাম আয়ারল্যান্ডের সঙ্গেও তার চেয়ে কম করা হচ্ছে না। নিজেদের সেরা ক্রিকেট খেলতে পারলে কোনো দলকে  হারানোই আমাদের জন্য কঠিন না। এটা আমাদের মূল বিষয়।’

 

টি-টোয়েন্টিতে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ইংল্যান্ডকে হোয়াইটওয়াশের পর আত্মবিশ্বাসে ভরপুর বাংলাদেশ হট ফেভারিট হয়েই আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজ শুরু করবে।
২০০৮ সালের পর দ্বিপাক্ষিক সিরিজ খেলতে প্রথমবারের মতো বাংলাদেশে এসেছে আয়ারল্যান্ড।

পরিসংখ্যান অনুযায়ী, এখন পর্যন্ত ১০ ম্যাচে মুখোমুখি হয় বাংলাদেশ ও আয়ারল্যান্ড। এরমধ্যে সাতটি জিতেছে বাংলাদেশ এবং মাত্র দু’টিতে জয় পায় আয়ারল্যান্ড। বাকী একটি ম্যাচ পরিত্যক্ত হয়।

২০০৭ সালের ওয়ানডে বিশ্বকাপে ওয়েস্ট ইন্ডিজের ব্রিজটাউনে প্রথমবারের দেখায় বাংলাদেশের বিপক্ষে জয় পেয়েছিল আয়ারল্যান্ড। ২০১০ সালে বেলফাস্টে শেষবার বাংলাদেশকে হারিয়ছিল আইরিশরা। তবে গত এক দশকে বাংলাদেশের বিপক্ষে ম্যাচে কোনো লড়াই করতে পারেনি আয়ারল্যান্ড।

 

এই দশকে প্রথম ম্যাচ হতে যাচ্ছে দুই দলের। ২০১৯ সালে ত্রিদেশীয় টুর্নামেন্টের ম্যাচে সর্বশেষ মুখোমুখি হয়েছিল দুই দল। ম্যাচটি হেসেখেলে ৬ উইকেটে জিতেছিল বাংলাদেশ। ওই ত্রিদেশীয় টুর্নামেন্টের অন্য দল ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হারিয়ে ইতিহাসে একমাত্র বড় ট্রফি জিতেছিল বাংলাদেশ।

 

২০১৬ সালে ও গেল মাসে ইংল্যান্ডের কাছে দু’টি  হার ছাড়া ২০১৫ সাল থেকে ঘরের মাঠে ওয়ানডেতে  কোন সিরিজ হারেনি  বাংলাদেশ।

আধিপত্য বিস্তার করার সাথে স্পিনে সফরকারীদের দুর্বলতা এবং ঘরের মাঠে অবিশ্বাস্য রেকর্ডের পরও খেলোয়াড়দের আত্মতুষ্টি না ভোগার আহ্বান করেছেন হাথুরুসিংহে।

 

হাথুরুসিংহে জানান,  প্রথম ওয়ানডের সেরা একাদশে কিছু পরিবর্তন করা হবে। কারণ ভারতে আগামী ওয়ানডে বিশ্বকাপের দিকে চোখ রেখেই দল নিয়ে পরিকল্পনা করা হচ্ছে। তিনি বলেন, ‘আমরা যেভাবেই খেলি না কেন, আমাদের লক্ষ্য জয়। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে কোন দলই ছোট  নয়। বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডকে হারায় তারা। নিজেদের দিনে যেকোন দলকে যেকেউ হারাতে পারে।’

 

তিনি আরও বলেন, ‘আমরা যেভাবেই খেলি না কেন আমরা আমাদের পুলকে বড় করার চেষ্টা করছি। আমরা জয়ের চেষ্টা করবো।’

এদিকে, অনুশীলনের সময় ইনজুরিতে পড়েছেন প্রথমবারের মতো ওয়ানডে দলে ডাক পাওয়া জাকির হাসান। তার জায়গায় দলে নেয়া হয়েছে রনি তালুকদারকে।

 

বাংলাদেশ দল : তামিম ইকবাল (অধিনায়ক), লিটন দাস, নাজমুল হোসেন শান্ত, সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম, আফিফ হোসেন, ইয়াসির আলী চৌধুরী, তৌহিদ হৃদয়, মেহেদি হাসান মিরাজ, নাসুম আহমেদ, তাসকিন আহমেদ, এবাদত হোসেন চৌধুরী, মুস্তাফিজুর রহমান, হাসান মাহমুদ, শরিফুল ইসলাম ও রনি তালুকদার।

Print Friendly and PDF