চট্টগ্রাম, রোববার, ২৩ জুন ২০২৪ , ৯ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সম্মিলিত প্রচেষ্টায় বাংলাদেশ এগিয়ে চলবে: হুইপ স্বপন

প্রকাশ: ১৩ মার্চ, ২০২৩ ৫:৫০ : অপরাহ্ণ

আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এবং জাতীয় সংসদের হুইপ আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন বলেছেন, ,বাংলাদেশের সব দেশপ্রেমিক নাগরিকের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ এগিয়ে চলবেই। অবসরপ্রাপ্ত বিদেশী নেতারা বাংলাদেশের অদম্য এগিয়ে চলা রুখতে পারবে না।

সোমবার জয়পুরহাট মহিলা ডিগ্রী কলেজের রজতজয়ন্তী অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন বলেন, একজন বিশেষ ব্যক্তির জন্য কয়েকজন বিদেশি বিশিষ্ট নাগরিক বিদেশি পত্রিকায় বিজ্ঞাপন আকারে বিবৃতি প্রকাশ করেছেন। সেই বিবৃতির বিজ্ঞাপন একজন ব্যক্তির অযৌক্তিক আবদার পূরণের জন্য দেশের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ করার চক্রান্ত। যারা বিবৃতির বিজ্ঞাপনে স্বাক্ষর করেছেন তাদের অধিকাংশই নিজ নিজ দেশে রাজনীতিতে অবসর গ্রহণ করেছেন বা অবসর প্রস্তুতিকালীন ছুটিতে রয়েছেন।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশের সব শ্রেণি পেশার নাগরিকদের মেধা ও পরিশ্রমের ফসল হিসেবে বিশ্ব দরবারে বাংলাদেশ মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়ে উন্নয়ন ও দারিদ্র্য বিমোচনের বিশ্ব মডেলে উন্নীত হয়েছে। আজ বাংলাদেশের অর্থনীতির আকার ৪৬৬ বিলিয়ন ডলার, মাথা পিছু আয় ২ হাজার ৮৫০ ডলার, অতি দারিদ্র্য ১০ দশমিক ৫ শতাংশে নেমেছে, রফতানি ৫৩ বিলিয়ন ডলার, বিশ্বমন্দার মাঝেও ৩১ বিলিয়নের ওপর বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ রয়েছে। আয়তনে বিশ্বে ৯৪ তম, জনসংখ্যায় ৮ম হয়ে বাংলাদেশ আজ বিশ্বে ৩৫তম অর্থনীতির দেশ।

হুইপ স্বপন বলেন, বর্তমান গতি অব্যাহত থাকলে ২০৩৫ সালের মধ্যে বাংলাদেশ বিশ্বের ৩৫তম এবং ২০৩৭ সালের মধ্যে ২০তম অর্থনীতির দেশ হিসেবে মাথা উঁচু করে দাঁড়াবে। ২০৩১ সালের মধ্যে বাংলাদেশের নূন্যতম মাথাপিছু আয় হবে ৪ হাজার ১২৬ ডলার এবং আমাদের যে লক্ষ্য তাতে ২০৪১ সালের পূর্বেই আমাদের মাথাপিছু আয় ১২ হাজার ৭৩৬ ডলার অতিক্রম করবে।

এর আগে সকাল ১১ টায় জাতীয় পতাকা উত্তোলন, পায়রা অবমুক্তি ও বেলুন উড়িয়ে কলেজ ক্যাম্পাসে রজতজয়ন্তী অনুষ্ঠানের সূচনা হয়।

কলেজের গভর্নিং বডির সভাপতি অ্যাডভোকেট মোমিন আহমেদ চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেন, সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এস এম সোলায়মান আলী, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ফারজানা ইসলাম, অধ্যক্ষ আব্দুল মোমেন প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

Print Friendly and PDF