চট্টগ্রাম, সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪ , ৩রা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বাংলাদেশ এখন এশিয়ার ষষ্ঠ দ্রুত সম্প্রসারণশীল অর্থনৈতিক শক্তি

প্রকাশ: ৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ ১১:১৪ : পূর্বাহ্ণ

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুযোগ্য নেতৃত্বে বাংলাদেশ এখন এশিয়ার ষষ্ঠ দ্রুত সম্প্রসারণশীল অর্থনৈতিক শক্তি এবং দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে শীর্ষস্থানীয়।

মঙ্গলবার সংসদে রাষ্ট্রপতির ভাষণ সম্পর্কে আনীত ধন্যবাদ প্রস্তাবের ওপর আলোচনায় অংশ নিয়ে সংসদ সদস্যরা বলেন, আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (আইএমএফ) পরিসংখ্যান অনুসারে সরকার যথাযথ পদক্ষেপ নেয়ার ফলে বাংলাদেশ এখন এশিয়ার ষষ্ঠ দ্রুত সম্প্রসারণশীল অর্থনৈতিক শক্তি এবং দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলিতে শীর্ষ দ্রুত সম্প্রসারণশীল অর্থনৈতিক শক্তি। এমনকি বাংলাদেশ এখন বিশ্বের ৩৫তম বৃহত্তম অর্থনৈতিক দেশ এবং প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে ২০৩০ সালের মধ্যে এটি হবে ২৪তম বৃহত্তম অর্থনীতি।

গত ৫ জানুয়ারি সংবিধান অনুযায়ী, বছরের প্রথম অধিবেশনের প্রথমদিনে সংসদে রাষ্ট্রপতি এ ভাষণ দেন। রীতি অনুযায়ী এ ভাষণ সম্পর্কে চিফ হুইপ নূর-ই-আলম চৌধুরী ধন্যবাদ প্রস্তাব উত্থাপন করেন। এ প্রস্তাবটি সমর্থন করেন সরকারি দলের সদস্য শহীদুজ্জামান সরকার।

ধন্যবাদ প্রস্তাবের ওপর আলোচনার ২০তম দিনে আজ অংশ নেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম. মোজাম্মেল হক, শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক, বস্ত্র ও পাট মন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী, সরকারি দলের সদস্য শহীদুজ্জামান সরকার, কাজী নাবিল আহমেদ, আনোয়ার হোসেন খাঁন, আতিউর রহমান আতিক, মো. মনোয়ার হোসেন চৌধুরী, মো. নজরুল ইসলাম চৌধুরী, কাজিম উদ্দিন আহম্মেদ, ছোট মনির, জাতীয় পার্টির সদস্য মো. মুজিবুল হক, কাজী ফিরোজ রশীদ, আনিসুল ইসলাম মাহমুদ ও ফখরুল ইমাম, বেগম নাজমা আক্তার।

তারা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের কৃষি উন্নয়ন, বিদ্যুৎ ও জ্বালানি, যোগাযোগ, আর্থ-সামাজিক, শিক্ষা, যুব ও ক্রীড়া, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি)সহ বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ড তুলে ধরেন।

সরকারের সাফল্যের বিস্তারিত তুলে ধরে দেশকে শান্তি, অগ্রগতি ও সমৃদ্ধির দিকে পরিচালিত করার জন্য সময়োপযোগী ভাষণ দেওয়ার জন্য এমপিরা রাষ্ট্রপতিকে ধন্যবাদ জানান।

এর আগে, তারা স্বাধীন বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অবদানের জন্য গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

Print Friendly and PDF