চট্টগ্রাম, বুধবার, ২৯ মে ২০২৪ , ১৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চূড়ান্ত প্রতিবেদনে দেশের জনসংখ্যা বাড়ল যত

প্রকাশ: ৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ ৪:১৭ : অপরাহ্ণ

বাংলাদেশের জনসংখ্যা নিয়ে জনশুমারি ও গৃহগণনা চূড়ান্ত প্রতিবেদন দিয়েছে। বর্তমানে দেশের জনসংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৬ কোটি ৯৭ লাখ ৪৭৭ জনে । এর আগে সাময়িক হিসাবে যা ছিল ১৬ কোটি ৫১ লাখ ৫৮ হাজার ৬১৬ জন। দেখা যায়, চূড়ান্ত ফলাফলে জনসংখ্যা বেড়েছে ৪৫ লাখ ৪১ হাজার ৮৬২ জন।

২০২২ সালের ২৭ জুলাই বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরোর (বিবিএস) প্রথম ডিজিটাল ‘জনশুমারি ও গৃহগণনা ২০২২’-এর প্রাথমিক প্রতিবেদন বলা হয়েছিল, বাংলাদেশের জনসংখ্যা ১৬ কোটি ৫১ লাখ ৫৮ হাজার ৬১৬ জন। এর মধ্যে পুরুষ আট কোটি ১৭ লাখ ১২ হাজার ৮২৪ জন, নারী আট কোটি ৩৩ লাখ ৪৭ হাজার ২০৬ জন এবং তৃতীয় লিঙ্গের জনগোষ্ঠী ১২ হাজার ৬২৯ জন।

সেসময় প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, স্বাধীনতার পর ১৯৭৪ সালে অনুষ্ঠিত প্রথম শুমারিতে দেশের জনসংখ্যা ছিল ৭ কোটি ১৫ লাখ। এরপর ১৯৮১ সালে জনশুমারি অনুষ্ঠিত হয়। ওই সময় মোট জনসংখ্যা বেড়ে দাঁড়ায় আট কোটি ৭১ লাখ ১৯ হাজার ৯৬৫ জনে। ১৯৯১ সালে দেশে মোট জনসংখ্যা বেড়ে দাঁড়ায় ১০ কোটি ৬৩ লাখে।

২০০১ সালে দেশের জনসংখ্যা ছিল ১২ কোটি ২৪ লাখ। ২০১১ সালের জনশুমারিতে গড় জনসংখ্যার বৃদ্ধির হার ছিল ১ দশমিক ৩৭। জনসংখ্যার ঘনত্ব বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ১১৯ জন। দেশের জনসংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১৪ কোটি ৪০ লাখ।

Print Friendly and PDF