চট্টগ্রাম, রোববার, ২৯ জানুয়ারী ২০২৩ , ১৫ই মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বগুড়া ৪ ও ৬ উপনির্বাচন: প্রার্থিতা প্রত্যাহার নিয়ে বিপাকে হিরো আলম

প্রকাশ: ১৫ জানুয়ারি, ২০২৩ ১১:১১ : পূর্বাহ্ণ

বিএনপির সংসদ সদস্যদের পদত্যাগে শূন্য হওয়া বগুড়া-৪ (কাহালু-নন্দীগ্রাম) ও বগুড়া-৬ (সদর) আসনের যেকোনো একটি আসন থেকে নির্বাচন করতে চান হিরো আলম। তাই তিনি দুই আসন থেকেই মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। যদিও শেষ পর্যন্ত যেকোনো একটি আসন থেকে নির্বাচন করতে চান।

এতে বিপাকে পড়েছেন আলোচিত প্রার্থী আশরাফুল আলম ওরফে হিরো আলম। গত ৫ জানুয়ারি মনোনয়নপত্র দাখিল করার পর ৮ জানুয়ারি যাচাই-বাছাইকালে ত্রুটির কারণে হিরো আলমসহ ১১ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল করেন রির্টানিং অফিসার ও জেলা প্রশাসক সাইফুল ইসলাম। হিরো আলমের দুটি আসনেরই মনোনয়ন বাতিল করা হয়।

এদিকে নির্বাচনের তফসিল অনুযায়ী প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ দিন ১৫ জানুযারি বিকেল ৫টা পর্যন্ত। হিরো আলম যেহেতু একটি আসন থেকে নির্বাচন করার চিন্তা করছেন। কিন্তু প্রার্থিতা নিশ্চিত করতে আপিলের রায় দেওয়া হবে ১৫ জানুয়ারি রোববার বিকেল ৪ টায়। আবার একই দিনে বিকেল ৫টা পর্যন্ত প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ সময়।

এ বিষয়ে হিরো আলম বলেন, আমার সঙ্গে শুধু ষড়যন্ত্র আর ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে, আমি যদি একটি আসনে নির্বাচন করি সেক্ষেত্রে আমি কীভাবে প্রার্থিতা প্রত্যাহার করবো অন্য আসনের। কারণ আপিলের রায়ও একই দিনে দেয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, আপিলের রায় আমার পক্ষে না গেলে উচ্চ আদালতে যাবো। এভাবে শুধু সময় চলে যাচ্ছে কিন্তু ভোটের জন্য গণসংযোগ করতে পারছি না। এলাকা ছেড়ে ঢাকায় বসে থাকতে হচ্ছে প্রার্থিতা ফেরত পেতে।

জানা গেছে, স্বতন্ত্র প্রার্থীদের বেলায় নির্বাচন কমিশনের বিধি অনুযায়ী সংশ্লিষ্ট আসনের মোট ভোটারের মধ্যে সমর্থনসূচক এক শতাংশ ভোটারের স্বাক্ষর করা তালিকা মনোনয়নপত্রের সঙ্গে জমা দিতে হয়। নির্বাচন অফিস থেকে মাঠ পর্যায়ে খোঁজ নিতে গিয়ে ওই তালিকায় গড়মিল পাওয়ায় বগুড়া-৪ আসনের সকল স্বতন্ত্র প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল করেন জেলা রির্টানিং কর্মকর্তা ও জেলা প্রশাসক সাইফুল ইসলাম।

বগুড়া-৬ সদর আসনেও একই কারণে মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয় হিরো আলমসহ ৫ স্বতন্ত্র প্রার্থীর।

Print Friendly and PDF