চট্টগ্রাম, বৃহস্পতিবার, ২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ , ১৯শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

পৃথক অভিযানে সিরাজগঞ্জের বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম থানা এবং সদরে ১৭১ বোতল ফেন্সিডিল ও ৪ পিচ ইয়াবাসহ ৩ মাদক ব্যবসায়ী আটক

প্রকাশ: ১৯ ডিসেম্বর, ২০২২ ১১:১৪ : পূর্বাহ্ণ

র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) প্রতিষ্ঠাকালীন সময় থেকেই দেশের সার্বিক আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি সমুন্নত রাখার লক্ষ্যে সব ধরণের অপরাধীকে আইনের আওতায় নিয়ে আসার ক্ষেত্রে অগ্রণী ভূমিকা পালন করে যাচ্ছে। জঙ্গী, সন্ত্রাসী, সংঘবদ্ধ অপরাধী, ছিনতাইকারী, জুয়ারি, মাদক ব্যবসায়ী, খুন, এবং অপহরণসহ বিভিন্ন চাঞ্চল্যকর মামলার আসামী গ্রেফতারে র‌্যাব নিয়মিত অভিযান চালিয়ে আসছে।

১।এরই ধারাবাহিকতায় মোঃ মারুফ হোসেন পিপিএম অধিনায়ক, র‌্যাব-১২, সিরাজগঞ্জ মহোদয়রে দিক নির্দেশনায় ১৮/১২/২০২২ ইং তারিখ বিকাল ৪.৩০ ঘটিকায় লেফটেন্যান্ট কমান্ডার বিএন মোঃ আবুল হাশেম সবুজ এর নেতৃত্বে র‌্যাব-১২’র স্পেশাল কোম্পানীর একটি চৌকষ আভিযানিক দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সিরাজগঞ্জ জেলার বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম থানাধীন রেলওয়েষ্টেশন এর বিপরিত পার্শ্বে সিরাজগঞ্জ হইতে ঢাকা মুখী হাইওয়ে পাকা রাস্তার উপর একটি মাদক বিরোদ্ধী অভিযান চালিয়ে ১৪৪ (একশত চুয়াল্লিশ) বোতল ফেন্সিডিলসহ ০২ জন মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে।

গ্রেফতারকৃত আসামীঃ  ১। মোঃ সাব্বির হোসেন(২২), পিতা- মোঃ মৃত মোবারক হোসেন, আইনের সহিত সংঘাতে জড়িত শিশু ২। মোঃ সবুজ ইসলাম(১১) ,পিতা-মৃত শাহিন উভয় সাং-মারাধার, থানা- হরিপুর, জেলা-ঠাকুরগাঁ।

গ্রেফতারকৃত আসামীদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করত উদ্ধারকৃত আলামতসহ তাহাদেরকে সিরাজগঞ্জ জেলার বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

২। মোঃ মারুফ হোসেন পিপিএম অধিনায়ক, র‌্যাব-১২, সিরাজগঞ্জ মহোদয়রে দিক নির্দেশনায় ১৮/১২/২০২২ ইং তারিখ সন্ধ্যা ৭.৩০ ঘটিকায় লেফটেন্যান্ট কমান্ডার বিএন মোঃ আবুল হাশেম সবুজ এর নেতৃত্বে র‌্যাব-১২’র স্পেশাল কোম্পানীর একটি চৌকষ আভিযানিক দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সিরাজগঞ্জ জেলার সদর থানাধীন মালশাপাড়া এলাকায় একটি মাদক বিরোদ্ধী অভিযান চালিয়ে ২৭(সাতাশ) বোতল ফেন্সিডিল এবং এবং ০৪(চার) পিচ ইয়াবাসহ ০১ জন মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে।

গ্রেফতারকৃত আসামীঃ  মোঃ মাহমুদুল হক মামুন(৩৭), পিতা- মোঃ আব্দুল হক, গ্রাম-মালশাপাড়া (এস বি ফজলুল হক রোড), থানা ও জেলা- সিরাজগঞ্জ।

গ্রেফতারকৃত আসামীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করত উদ্ধারকৃত আলামতসহ তাহাকে সিরাজগঞ্জ জেলার সদর থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায় যে, এই মাদক ব্যবসায়ীরা দীর্ঘদিন যাবৎ আইন প্রয়োগকারী সংস্থার চোখ ফাঁকি দিয়ে সিরাজগঞ্জসহ বিভিন্ন  জেলায় অবৈধ নেশাজাতীয় মাদকদ্রব্য ক্রয়-বিক্রয় করে আসছিল।

Print Friendly and PDF