চট্টগ্রাম, বুধবার, ৭ ডিসেম্বর ২০২২ , ২২শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

করোনা আক্রান্ত ৮০০ যাত্রী নিয়ে সিডনি বন্দরে ভিড়লো প্রমোদ তরী

প্রকাশ: ১৩ নভেম্বর, ২০২২ ৩:১৬ : অপরাহ্ণ

অস্ট্রেলিয়ার সিডনি বন্দরে নোঙর করা একটি বিলাসবহুল প্রমোদ তরীর প্রায় ৮০০ যাত্রীর শরীরে কোভিড সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে বলে জানা গেছে।

রোববার (১৩ নভেম্বর) এক প্রতিবেদনে সংবাদমাধ্যম সিএনএন জানায়, দেশটির সবচেয়ে জনবহুল রাজ্য নিউ সাউথ ওয়েলসের রাজধানীর বন্দরে নোঙর করা জাহাজটির নাম ম্যাজেস্টিক প্রিন্সেস।

কার্নিভাল অস্ট্রেলিয়া কোম্পানি জানিয়েছে, পরীক্ষায় তাদের মালিকানাধীন জাহাজটিতে থাকা প্রায় ৮০০ আরোহীর কোভিড পজিটিভ এসেছে।

জাহাজটিতে কোভিড-১৯ প্রটোকল পর্যাপ্ত ছিল বলে অস্ট্রেলিয়ার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী শনিবার জনগণকে আশ্বস্ত করেছেন।

নিউ সাউথ ওয়েলস রাজ্যের স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষ এই প্রাদুর্ভাবের ঝুঁকির মাত্রা ‘স্তর ৩’ বলে নির্ধারণ করেছে; এটি উচ্চ স্তরের সংক্রমণের ইঙ্গিত দিচ্ছে বলে বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে।

২০২০ সালে রুবি প্রিন্সেস নামের আরেকটি প্রমোদ তরীতেও প্রায় একই ধরনের ঘটনা ঘটেছিল। ওই সংক্রমণের ঘটনাও নিউ সাউথ ওয়েলসেই ঘটেছিল। তখন জাহাজটির ৯১৪ জন আরোহী কোভিড আক্রান্ত হয় আর তাদের মধ্যে ২৮ জনের মৃত্যু হয়।

রাজ্যের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ক্লেয়ার ওনিল জানিয়েছেন, কর্তৃপক্ষ রুবি প্রিন্সেস পর্বের পরিপ্রেক্ষিতে ‘নিয়মিত প্রটোকল’ তৈরি করেছে আর ম্যাজেস্টিক প্রিন্সেস থেকে যাত্রীদের কীভাবে ‘একজন একজন করে’ নামিয়ে আনবে নিউ সাউথ ওয়েলস স্বাস্থ্য বিভাগ তার নেতৃত্ব দেবে।

ফেডারেল সীমান্ত বাহিনী রাজ্য কর্তৃপক্ষকে সার্বিক সহযোগিতা দেবে বলে মেলবোর্নে এক সংবাদ সম্মেলনে জানিয়েছেন তিনি।

বৈশ্বিক অবকাশযাপন কোম্পানি কার্নিভাল কর্পোরেশন এন্ড পিএলসি অংশ কার্নিভাল অস্ট্রেলিয়া জানিয়েছে, জাহাজের কোভিড পজিটিভ যাত্রীদের ভেতরেই আইসোলেশনে রাখা হয়েছে এবং জাহাজের চিকিৎসা কর্মীরা তাদের সেবাযত্ন করছেন।

নিউ সাউথ ওয়েলস হেলথ জানিয়েছে, তারা জাহাজটির যাত্রী ও ক্রু সদস্যদের শারীরিক অবস্থা পর্যবেক্ষণ করার জন্য প্রমোদ তরীটির কর্মীদের সঙ্গে কাজ করে যাচ্ছে।

অস্ট্রেলিয়াজুড়ে কোভিড-১৯ সংক্রমণ বাড়ার মধ্যেই প্রমোদ তরীতে সংক্রমণের এ ঘটনা ঘটলো। ওমিক্রণ ভ্যারিয়েন্ট এক্সবিবি সামাজিক এ সংক্রমণ বৃদ্ধির জন্য দায়ী বলে গত সপ্তাহে জানিয়েছে দেশটির কেন্দ্রীয় সরকার।

Print Friendly and PDF