চট্টগ্রাম, সোমবার, ৫ ডিসেম্বর ২০২২ , ২০শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বিএনপি মানুষের ওপর জুলুম-অত্যাচার করে বেড়ায়: নানক

প্রকাশ: ৭ নভেম্বর, ২০২২ ১২:৫৪ : অপরাহ্ণ

আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেছেন, বিএনপির নেতারা কখনো গণতন্ত্র চর্চা করে না। তারা মানুষের ওপর জুলুম-অত্যাচার করে বেড়ায়। বিএনপির শাসনামলে আমরা বাড়িতে ঘুমাতে পারিনি। বাড়িঘর জ্বালিয়ে পুড়িয়ে দিয়েছিল তারা। আমাদের ব্যবসা-বাণিজ্য করতে দেয়নি। আমাদের হাত-পা ভেঙে দিয়েছিল। তবে আমাদের নেত্রী শেখ হাসিনা উন্নয়ন ও গণতন্ত্রে বিশ্বাসী। তার শাসনামলে মির্জা ফখরুলরা নির্বিঘ্নে বাড়িতে ঘুমাচ্ছেন। আমরা তাদের মতো অমানবিক আচরণ করিনি।

রোববার বিকেলে কাজী নজরুল অডিটোরিয়ামে সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের প্রতিনিধি সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

নানক আরো বলেন, বর্তমানে আমরা গভীর ষড়যন্ত্র ও চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করছি। আমাদের এসব ষড়যন্ত্রের জাল ছিন্নভিন্ন করে বের হয়ে আসতে হবে। এজন্য আমাদের ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে। কেননা আওয়ামী লীগের প্রাণশক্তি এ দেশের জনগণ। জনগণ ও দলের কর্মীদের সঙ্গে নিয়ে আওয়ামী লীগ সারাজীবন আন্দোলন সংগ্রাম ও লড়াই করে এসেছে।

দলীয় নেতাকর্মীদের কাজের নির্দেশনা দিয়ে নানক বলেন, সামনের সময় কঠিন।। আমাদের লড়াই করতে হবে। আমরা ঠিকে থাকবো ভেবে কাজ না করলে চলবে না। সমাজের বিভিন্ন শ্রেণির লোকজনের সঙ্গে সর্ম্পক বাড়াতে হবে। তাদের নিয়ে কাজ করতে হবে।

সভায় আওয়ামী লীগের আরেক প্রেসিডিয়াম সদস্য ও সাবেক শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেন, দারিদ্র্যতা দূরীকরণে বাংলাদেশ পুরো বিশ্বের কাছে এখন উদাহরণ। দেশ আজকে খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ। কিন্তু বিএনপি মিথ্যাচারে লিপ্ত। তাদের মিথ্যাচার সত্ত্বেও দেশ এগিয়ে যাচ্ছে।

বিএনপি মিথ্যাচার করছে উল্লেখ করে নাহিদ বলেন, পদ্মাসেতু নিয়েও বিএনপি মিথ্যে প্রচারণা চালিয়েছিল। বলেছিল, এ সেতু হবে না। কিন্তু শেখ হাসিনা পদ্মাসেতু নির্মাণ করেছেন।

মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মাসুক উদ্দিন আহমদের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেনের পরিচালনায় সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন ও শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল, পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন, প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সদস্য ড. মুশফিক হোসেন চৌধুরী ও আজিজুস সামাদ ডন, উপ-দফতর সম্পাদক সায়েম খান প্রমুখ।

Print Friendly and PDF