চট্টগ্রাম, মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ , ১৪ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

ঝাঁকে ঝাঁকে ধরা পড়ছে ইলিশ, উৎসবে মেতেছেন জেলেরা

প্রকাশ: ২৯ অক্টোবর, ২০২২ ১২:২৩ : অপরাহ্ণ

টানা ২২ দিনের নিষেধাজ্ঞার পর গতকাল দিবগত রাত ১২টার পর থেকে ইলিশ ধরা শুরু হয়েছে। শনিবার ভোর থেকেই ভোলার মেঘনায় ঝাঁকে ঝাঁকে ইলিশ ধরা পড়ছে। এতে হাসি ফুটেছে জেলেদের মুখে।

ইলিশ ধরা পড়ায় জেলেপাড়ায় ব্যস্ততা বেড়ে যাওয়ার পাশাপাশি সরগরম হয়ে উঠেছে মাছের আড়ত।

ইলিশ ধরার উৎসবে মেতে উঠেছেন ভোলার জেলেরা। এবারে ইলিশ বিক্রির টাকায় বিগত দিনের ক্ষতি পুশিয়ে ঘুরে দাঁড়াতে পারবেন বলে আশা করছেন তারা।

ইলিশ ধরার নিশেধাজ্ঞা কাটিয়ে নদীতে নেমেই দেখা মিলেছে ইলিশের। নদীতে শত শত নৌকা ট্রলার নিয়ে জেলেরা নেমে পড়েন ইলিশ শিকারে। প্রথম দিনেই পর্যাপ্ত মাছ পাওয়ায় খুশি তারা।

কথা হয় ভোলার জেলে রহিজল, সামসু ও করিমের সঙ্গে। তারা বলেন, আমরা রাতেই নদীতে গিয়েছি। যে পরিমাণ মাছ পেয়েছি, তাতে ঘুরে দাঁড়াতে পারবো বলে আশা রাখছি। এভাবে মাছ পেলে ধারদেনাও পরিশোধ করে দিতে পারবো।

ভোলা সদরের তুলিতলী মাছ ঘাটের আড়তদার মনজুর আলম বলেন, নদীতে মোটামুটি ভালো ইলিশ পাওয়ায় যাচ্ছে। এতে জেলেরাও খুশি আর আমরা আড়তদাররাও খুশি। প্রথম দিন এ ঘাটে ৬০ লাখ টাকার মাছ কেনা-বেচা হয়েছে।

দ্বীপজেলা ভোলায় ইলিশ ধরার ওপর জীবিকা চলে এমন জেলের সংখ্যা তিন লাখেরও বেশি। তারা সবাই এখন ইলিশ ধরতে নদী-সাগরে ছুটছেন। এছাড়া ঘাটগুলোতে পাইকার, আড়তদার ও জেলেদের কর্মব্যস্ততায় সরগরম হয়ে উঠেছে। আড়তগুলোতে লাখ লাখ টাকার মাছ বিক্রি হচ্ছে। সেই মাছ চলে যাচ্ছে বাইরের জেলাগুলোতে।

এ বছর ইলিশের লক্ষমাত্রা অর্জিত হবে বলে মনে করছেন জেলা মৎস্য কর্মকর্তা মোল্লা এমদাদুল্লাহ। তিনি বলেন, ইলিশ রক্ষায় এবারের অভিযান সফল হয়েছে। তাই নদীতে ইলিশের উৎপাদন বেড়েছে।

Print Friendly and PDF