চট্টগ্রাম, সোমবার, ২৮ নভেম্বর ২০২২ , ১৩ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

পশ্চিমা চাপেও অটল ওপেক প্লাসের দেশসমূহ, বিস্তৃত ভাষণ দিলেন সৌদি বাদশাহ

প্রকাশ: ১৭ অক্টোবর, ২০২২ ৬:০৫ : অপরাহ্ণ

বিশ্বব্যাপী তেলের বাজারে স্থিতিশীলতা সমর্থন করে সোমবার এক বিস্তৃত ভাষণ দিয়েছেন সৌদি বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজ। তিনি বলেছেন, ‘সৌদি আরব তার শক্তি ও কৌশলের মাধ্যমে বিশ্বব্যাপী তেলের বাজারের স্থিতিশীলতা এবং ভারসাম্য রক্ষায় কঠোর পরিশ্রম করছে।’

সৌদি প্রেস এজেন্সির বরাতে আল-অ্যারাবিয়া নিউজ এক প্রতিবেদনে জানায়, তেলের উৎপাদন কমানোর সিদ্ধান্তে যুক্তরাষ্ট্রের বাধা ও অসন্তুষ্টি উপেক্ষা করে ওপেক প্লাস সদস্যরাও সৌদি বাদশাহকে সমর্থন করে সোমবার বিবৃতি দিয়েছে।

সংযুক্ত আরব আমিরাতের জ্বালানি মন্ত্রী সুহেল আল-মাজরুই টুইট বার্তায়, ইরাকের তেল বিপণনবারী এসওএসও, কুয়েত পেট্রোলিয়াম করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা নাওয়াফ সৌদ আল-সাবাহ বিবৃতি দিয়ে ওপেক প্লাসের সিদ্ধান্তকে সমর্থন জানিয়েছেন।

ওমান ও বাহরাইনও বিবৃতি জারি করে সিদ্ধান্তের প্রতি সমর্থন জানিয়েছে। আলজেরিয়ার জ্বালানি মন্ত্রী তেলের উৎপাদন কমানোর সিদ্ধান্তকে ‘ঐতিহাসিক’ বলে অভিহিত করে এর প্রতি পূর্ণ আস্থা প্রকাশ করেছেন।

এদিকে সোমবার দেয়া ভাষণে বাদশাহ সালমান সৌদি আরবজুড়ে নতুন আবিষ্কৃত প্রাকৃতিক গ্যাস ক্ষেত্রগুলোর বিকাশ অব্যাহত রাখার ঘোষণা দিয়েছেন। কার্বন নিঃসরণ কমাতে ২০৩০ সালের মধ্যে বার্ষিক উৎপাদন কমানোর লক্ষ্যমাত্রাও জানিয়ে দিয়েছেন তিনি।

বাদশাহ সালমান তার ভাষণে রাশিয়া থেকে যুদ্ধবন্দীদের মুক্তির ক্ষেত্রে ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমানের উদ্যোগের কথা তুলে ধরেন। এমনকি ইরানকে আন্তর্জাতিক পরমাণু শক্তি সংস্থাকে (আইএইএ) সহযোগিতা ও পারমাণবিক প্রতিশ্রুতি পূরণ করার আহ্বানও জানিয়েছেন তিনি।

এ সময় তিনি সৌদি আরবের ভিশন ২০৩০ নিয়েও কথা বলেন, নারীদের ব্যাপারে সহনশীল নীতি গ্রহণ, জাতীয় বিনিয়োগ কৌশল ইত্যাদি নিয়েও কথা বলেন। এ ছাড়া তিনি আঞ্চলিক পর্যায়ের অস্থিতিশীলতা তথা ইয়েমেন ও লেবানন প্রসঙ্গ নিয়েও ভাষণ দেন।

Print Friendly and PDF