চট্টগ্রাম, শনিবার, ৩ ডিসেম্বর ২০২২ , ১৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

কম্পিউটারের সামনে কাজ করে চোখে ব্যথা, কোন ব্যায়ামে দ্রুত মুক্তি মিলবে

প্রকাশ: ১৩ অক্টোবর, ২০২২ ২:৩৪ : অপরাহ্ণ

চোখ শরীরের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ একটি অঙ্গ। চোখের উপরেই যাবতীয় চাপ। অফিসে দীর্ঘ ক্ষণ কম্পিউটারের পর্দার দিকে তাকিয়ে থাকা, ঘন ঘন অনলাইন মিটিং আর কাজের ফাঁকে সময় পেলেই মোবাইল নিয়ে ঘাঁটাঘাটি- সব ক্ষেত্রেই সবচেয়ে বেশি চাপ পড়ছে চোখের উপর।

শরীর সুস্থ রাখতে চিকিৎসকরা যেমন শরীরচর্চা করতে বলেন, তেমন চোখের আলাদা করে যত্ন নেয়াও প্রয়োজন। শরীরচর্চা করলেও চোখের পরিচর্যা আমরা কেউই করি না! চোখ ভালো রাখতে কাজের ফাঁকেই চোখকে বিশ্রাম দেওয়া ভীষণ জরুরি। মাঝেমাঝেই চোখে ঠাণ্ডা পানির ঝাপটা দেওয়া প্রয়োজন।

তবে দৃষ্টিশক্তি ভালো রাখতে, চোখ ব্যথা, অনবরত পানি পড়ার মতো কিছু সমস্যা মেটাতে ভরসা রাখতে পারেন সহজ কয়েকটি ব্যায়ামের উপর। চলুন তবে জেনে নেয়া যাক কাজের ফাঁকে চোখের কোন কোন ব্যায়াম না করলেই নয় সে সম্পর্কে-

হাতের তালুর ব্যবহার
প্রায় ১০ থেকে ১৫ মিনিট দুই হাতের তালু একটির সঙ্গে অপরটি ঘষে নিন। ঘর্ষণের ফলে হাতের তালুতে যে তাপ উৎপন্ন হবে, চোখ বন্ধ করে হাতদুইটি চোখের উপরে রাখুন। চাপ দেবেন না। হালকা হতে তাপ দিন চোখে। দিনে তিন থেকে তিনবার এটি করতে পারেন। চোখ ভালো থাকবে।

২০-২০-২০ নিয়ম মেনে চলুন
টানা ২০ মিনিট কম্পিউটার বা মোবাইলের স্ক্রিনের দিকে তাকিয়ে থাকার পর ২০ ফিট দূরে থাকা কোনো জিনিসের দিকে অন্তত ২০ সেকেন্ড তাকিয়ে থাকুন। এই পন্থা মেনে চললে চোখের উপর বাড়তি চাপ পড়বে না।

ঘন ঘন চোখের পাতা ফেলা
প্রতি তিন থেকে চার সেকেন্ড পর পর চোখের পাতা ফেলা, চোখের অনেক সমস্যা থেকে মুক্তি দেয়। বিশেষ করে এক ভাবে কম্পিউটারের দিকে তাকিয়ে থাকলে মাঝে মাঝে চোখের এই ব্যায়ামটি করে নেয়া ভালো। টানা এক মিনিট ঘন ঘন চোখের পাতা ফেলাও খুব উপকারী একটি অনুশীলন। দৃষ্টিশক্তি ভালো হয়।

চোখ ঘোরানোর অভ্যাস
গোল করে চোখের মণি ঘোরানোও চোখ ভালো রাখার জন্য বেশ কার্যকর একটি ব্যায়াম। ঘড়ির কাঁটার অভিমুখে এবং ঘড়ির কাঁটার বিপরীতে চারবার করে মণি ঘোরান। তার পর চোখ বন্ধ করে রাখুন দুই থেকে তিন সেকেন্ড মতো। দিনে দুইবার করে এই ব্যায়ামটি করুন। চোখের পেশি ভালো থাকবে। দৃষ্টিশক্তির ক্ষতি হবে না।

Print Friendly and PDF