চট্টগ্রাম, বুধবার, ৭ ডিসেম্বর ২০২২ , ২২শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

সেনাবাহিনীর সহায়তায় ছয় ঘণ্টা পর সাজেকে যান চলাচল শুরু

প্রকাশ: ৫ অক্টোবর, ২০২২ ৫:০১ : অপরাহ্ণ

রাঙামাটির সাজেক যাওয়ার পথে নন্দারাম নামক স্থানে পাহাড় ধসের ছয় ঘণ্টা পর সেনাবাহিনীর সহায়তায় যান চলাচল শুরু হয়েছে। বুধবার (৫ অক্টোবর) দুপুরে বাঘাইছড়ি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রুমানা আক্তার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

পাহাড় ধসের ঘটনায় রাস্তার দুই পাশে আটকা পড়েন কয়েক হাজার পর্যটক। মঙ্গলবার (৪ অক্টোবর) রাতে ভারী বৃষ্টিপাতের কারণে পাহাড় ধসের ঘটনা ঘটে। মাটি সরাতে সকাল থেকে সেনাবাহিনী কাজ শুরু করে।

মেঘের রাজ্য হিসেবে পরিচিত রাঙামাটি সাজেক ভ্যালি। বন্ধের দিনগুলোতে পর্যটকদের পদচারনায় মুখর থাকে। সনাতম ধর্মাবলম্বীদের অন্যতম বড় ধর্মীয় উৎসব দুর্গাপূজা ও সরকারি বন্ধের কারণে পর্যটকদের উপচে পড়া ভীর আশা করেছিলেন সাকেজ কটেজ মালিকরা। তবে পাহাড় ধসের ঘটনায় দুই পাড়ে কয়েক হাজার পর্যটক আটকা পড়েছেন। এর ফলে ব্যবসায়ীকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার শঙ্কা তাদের।

সাজেক কটেজ মালিক সমিতির সভাপতি সুপর্ণ দেব বর্মণ জানান, সকালে বিষয়টি আমরা জানতে পেরেছি। আমাদের সাজেক এলাকায় প্রায় ছোট-বড় মিলে ২০০ গাড়ি রয়েছে। যা গতকাল এসেছিলো। বুধবার সকালে অনেকের চলে যাওয়ারও কথা ছিল কিন্তু গাড়ি চলাচল বন্ধ থাকায় এখন সবাই আটকে আছে। আমাদের এখানে ১১২টি কটেজ আছে।
সব মিলে প্রায় ৪ হাজার পর্যটক থাকতে পারেন।

বাঘাইছড়ি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রুমানা আক্তার জানান, ‘মঙ্গলবার রাতে ভারি বৃষ্টিপাতের কারণে সাজেকে পাহাড়ধসের খবর সকাল ৮টার দিকে শুনেছি। পাহাড় ধসের পর সেনাবাহিনীর ২০ ইসিবি’র সদস্যদের সঙ্গে স্থানীয়রা মাটি সরানোর কাজে নেমে পড়েন। দুপুর আড়াইটার দিকে মাটি সরিয়ে যান চলাচল স্বাভাবিক করা হয়। এখন কোনো সমস্যা নেই। যান চলাচল স্বাভাবিক হয়েছে, পর্যটকরাও যাতায়াত শুরু করেছেন।

Print Friendly and PDF