চট্টগ্রাম, শনিবার, ৩ ডিসেম্বর ২০২২ , ১৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

স্ত্রীর মরদেহ খাটের নিচে রেখে ওপরে বসেছিলেন স্বামী

প্রকাশ: ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২২ ১২:১১ : অপরাহ্ণ

রোববার দুপুর ২টা। খাটের ওপর একা বসে আছেন হাসান। খাটের নিচে চাদর পেঁচিয়ে ঘুমাচ্ছেন শারমিন। ঘটনাটি দেখে স্থানীয় এক ব্যক্তিকে বলে দেয় আট বছরের রমজান। পরে তার ঘরে গিয়ে দেখলেন খাটের নিচে পড়ে আছে শারমিনের মরদেহ।

ঘটনাটি ঘটেছে ঝালকাঠির রাজাপুর উপজেলার পূর্ব বাদুরতলা গ্রামে। এ সময় স্থানীয়দের সহযোগিতায় হাসানকে আটক করে পুলিশ।

সোমবার সকালে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রাজাপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) গোলাম মোস্তফা। এর আগে রোববার দুপুরে উপজেলার নৈকাঠি এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়। নিহত শারমিন ঝালকাঠি সদর উপজেলার শাচিলাপুর গ্রামের মনির খানের মেয়ে। আটক হাসান রাজাপুর উপজেলার পূর্ব বাদুরতলা গ্রামের মিলবাড়ি এলাকার শহিদুল ইসলামের ছেলে।

স্থানীয় বাসিন্দা বাহারুল মিয়া বলেন, রোববার দুপুর ২টার পর হাসানের আট বছরের ছোট ভাই রমজান ঘরে ঢুকে দেখে- হাসান খাটের ওপর একা বসে আছেন। এ সময় খাটের নিচে চাদর পেঁচিয়ে ঘুমাচ্ছেন শারমিন। এ ঘটনাটি দেখে রমজান এসে আমাকে বলে। এ সময় আমরা হাসানের ঘরে তার স্ত্রীর মরদেহ দেখে পুলিশে সংবাদ দেই।

থানার পরিদর্শক (তদন্ত) গোলাম মোস্তফা বলেন, রোববার বিকেলে ঘটনাস্থল থেকে শারমিনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। পরে তার স্বামী রিকশাচালক হাসানকে আটক করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে পুলিশের কাছে স্ত্রীকে হত্যার কথা স্বীকার করেছেন তিনি।

তিনি আরো বলেন, মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ঝালকাঠি সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। একইসঙ্গে আটক হাসানের নামে একটি হত্যা মামলা হয়েছে বলে জানান তিনি।

Print Friendly and PDF