চট্টগ্রাম, মঙ্গলবার, ৪ অক্টোবর ২০২২ , ১৯শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

রাজতন্ত্রের অস্তিত্ব চায় না ব্রিটেনের তরুণ প্রজন্মের সিংহভাগ!

প্রকাশ: ১২ সেপ্টেম্বর, ২০২২ ৬:১৮ : অপরাহ্ণ

রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ মারা গেছেন গত ১ সেপ্টেম্বর। রাজা হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেছেন তৃতীয় চার্লস। তবে এরই মধ্যে প্রশ্ন উঠেছে রানির মৃত্যুর পর কি ব্রিটিশ রাজতন্ত্র জৌলুস হারাবে? বলা হচ্ছে, তৃতীয় চার্লসের চেয়েও তুলনামূলক বেশি জনপ্রিয় প্রিন্স উইলিয়াম। তবে একটি পরিসংখ্যান বলছে, নতুন প্রজন্মের ব্রিটিশ নাগরিকদের বেশিরভাগই রাজতন্ত্রকে সমর্থন করছেন না।

এ নিয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে সিএনএন। সেখানে একটি জরিপের কথা উল্লেখ করা হয়েছে। জরিপ বলছে, ব্রিটেনে সাংবিধানিক রাজতন্ত্র থাকা উচিত বলে মনে করেন ৬২ শতাংশ ব্রিটিশ। আর এর বিরুদ্ধে আছেন ২২ শতাংশ। ১৬ শতাংশ মানুষ এ নিয়ে ভাবছেন না। তবে নতুন প্রজন্মের বেশিরভাগই রাজতন্ত্রের বিরুদ্ধে। জরিপে দেখা গেছে, ৬৫ বছরের বেশি বয়সীদের ৭৪ শতাংশ ব্রিটেনে রাজতন্ত্র চান। তবে ১৮ থেকে ২৪ বছর বয়সীদের মাত্র ২৪ শতাংশ রাজতন্ত্রের পক্ষে সমর্থন দিয়েছেন।

এদিকে, বেশ কিছু জরিপে দেখা গেছে সাধারণ মানুষের কাছে বর্তমান রাজার চেয়েও উইলিয়ামের জনপ্রিয়তা কয়েকগুণ। এমনকি রাজ পরিবারেও জনপ্রিয়তায় রানির পরেই তার স্থান। তাই চার্লস ও প্রিন্সেস ডায়ানার বড় ছেলে উইলিয়ামকে ব্রিটিশ রাজতন্ত্রের ভবিষ্যৎ ভাবা হচ্ছে।

এ নিয়ে দ্যা সানের সাবেক রয়েল করেসপন্ডেন্ট চার্লস রে বলছেন, তার চারপাশে নানা কেলেঙ্কারি ঘটলেও তিনি কোনো কেলেঙ্কারিতে জড়াননি। সে সৎ হিসেবে পরিচিত। আমরা চাইও না কোনো কেলেঙ্কারিতে তার নাম আসুক। আমি মনে করি, রাজ পরিবারের ভবিষ্যৎ তার ওপরই নির্ভর করছে। মানুষের মনে জায়গা করে নিয়েছেন উইলিয়ামের স্ত্রী ক্যাথেরিন মিডেলটনও। প্রিন্স উইলিয়ামের যোগ্য সঙ্গী হিসেবে পরিচিতি পেয়েছেন বিশ্বব্যাপী।

সূত্র: যমুনা টিভি

Print Friendly and PDF