চট্টগ্রাম, মঙ্গলবার, ৪ অক্টোবর ২০২২ , ১৯শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

খাবার পরিবেশন করতে না পারায় স্ত্রীকে খুন, পুলিশকে বলে আত্মহত্যা

প্রকাশ: ২৭ আগস্ট, ২০২২ ১২:৪৮ : অপরাহ্ণ

খাবার পরিবেশন নিয়ে বাক-বিতণ্ডা। আর তার জেরেই স্ত্রীকে শ্বাসরোধ করে খুনের অভিযোগ উঠেছে ৫৯ বছর বয়সী এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে। অভিযুক্ত দীপক খিরবাত ভারতের পশ্চিমবঙ্গের সূর্য বিহার কলোনির বাসিন্দা। তিনি একজন অবসরপ্রাপ্ত সরকারি কর্মচারী।

পুলিশের বরাতে ভারতীয় গণমাধ্যম এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, বুধবার (২৪ আগস্ট) সন্ধ্যায় দীপক তাদের জানান যে তার স্ত্রী পুনম অরোরা(৫৮) আত্মহত্যা করেছেন। পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে পৌঁছালে মহিলাকে একটি ঘরে বিছানায় মৃত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে। এ সময় তার গলায় শাড়ি মোড়ানো ছিল।

তারা যে বাড়িটিতে থাকতেন তার আশেপাশের ঘরগুলিতে আরও ভাড়াটেরা থাকেন বলেও পুলিশ জানায়।

পরে নির্যাতিতার মেয়ে মান্যতা উইলিয়াম ঘটনাস্থলে পৌঁছে থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। তার অভিযোগ, সম্প্রতি তার মা মানসিক অসুস্থতা থেকে সম্পূর্ণ সুস্থ হয়ে উঠেছেন। তিনি তাকে প্রায়ই ফোনে বলতেন যে ভাড়াটেরা ভাল নয় এবং তারা তাকে হত্যা করতে পারে।

পুলিশ অভিযোগ পেয়ে তদন্ত শুরু করে। কিন্তু ময়নাতদন্তের রিপোর্টে জানা যায়, পুনমকে শ্বাসরোধ করে খুন করা হয়েছে এবং তাঁর সারা শরীরে পেরেকের আঁচড়ের দাগও ছিল। এর পরই জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশ মৃতার স্বামী দীপককে আটক করে।

জিজ্ঞাসাবাদে দীপক স্বীকার করেন যে, তার স্ত্রী ঠিক করে খাবার পরিবেশন করতে পারছিলেন না। আর তা নিয়ে দু’জনের মধ্যে ঝগড়া হয়। পরে তিনিই স্ত্রীকে রাগের বশে খুন করেন। পুলিশ অভিযুক্ত দীপককে গ্রেপ্তার করে।

Print Friendly and PDF