চট্টগ্রাম, সোমবার, ৩ অক্টোবর ২০২২ , ১৮ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

নদীর তলদেশে ডাইনোসরের পায়ের ছাপ! দেখতে পাওয়ার দাবি বিজ্ঞানীদের

প্রকাশ: ২৫ আগস্ট, ২০২২ ১১:৪৩ : পূর্বাহ্ণ

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাসের ডাইনোসর ভ্যালি স্টেট পার্কের ভিতর দিয়ে বয়ে চলেছে পালুক্সি নদী। তীব্র খরায় শুকিয়ে গেছে নদীর একটা বড় অংশ। পানি শুকিয়ে যেতেই নদীর বুকে দৃশ্যমান হলো ডাইনোসরের পায়ের ছাপ।

ওয়াশিংটন পোস্টের প্রতিবেদন অনুযায়ী, বিশেষজ্ঞদের দাবি এগুলো প্রায় ১১.৩ কোটি বছর পুরনো। ইতিমধ্যেই ডাইনোসরের ট্র্যাকের এই ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল।

ইতিহাসের সাক্ষী থাকতে প্রবল গরমকে উপেক্ষা করেই উদ্যানে ভিড় জমাচ্ছেন সাধারণ মানুষ। এখন পর্যন্ত পাওয়া বিশ্বের সর্ববৃহৎ এই ডাইনোসর ট্র্যাকে মিলেছে দুই প্রজাতির ডাইনোসরের পায়ের ছাপ। নাম অ্যাক্রোক্যান্থোসরাস ও সরোপোসেইডন।

বিজ্ঞানীদের বরাতে খবরে বলা হয়, অ্যাক্রোক্যান্থোসরাসের উচ্চতা ছিল প্রায় ১৫ ফুট। ওজন সাত টন। সরোপোসেইডন আরও বড়। ৬০ ফুট লম্বা এই বিশালকায় প্রাগৈতিহাসিক প্রাণীর ওজন ছিল ৪৪ টন।

উদ্যানের ওয়েবসাইট অনুযায়ী, কোনো এক প্রাচীন মহাসাগরের ধারে ছিল এই এলাকা। আর সেখানে ছিল ডাইনোসরদের অবাধ বিচরণ। ওই সময় থেকেই মাটিতে ডাইনোসরের পায়ের চিহ্ন থেকে যায় বলে দাবি করা হয়েছে সেখানে।

২০১১ সালের পর সবচেয়ে ভয়াবহ খরার সম্মুখীন হয়েছে টেক্সাস। আর এই খরার জেরেই নদীগর্ভে লুকিয়ে থাকা এক টুকরো ইতিহাসের সন্ধান মিলেছে। যদিও তা বেশিদিন দেখা যাবে না বলেই জানিয়েছে পার্ক কর্তৃপক্ষ। বৃষ্টি হলেই আবার পানির তলায় তলিয়ে যাবে ডাইনোসরদের স্মৃতি।

তবে এটি আসলেই ডাইনোসরের পায়ের ছাপ কিনা তা নিয়ে বিতর্ক শুরু হয়েছে। ইন্টারনেট ব্যবহারকারীরা বলছেন, হাজার হাজার বছর আগের পায়ের ছাপ এখনো টিকে থাকে কিভাবে?

Print Friendly and PDF