চট্টগ্রাম, মঙ্গলবার, ৪ অক্টোবর ২০২২ , ১৯শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

তাজিয়া মিছিলে নিজের বুকে চাকু ঢুকিয়ে মারা গেলেন যুবক

প্রকাশ: ১০ আগস্ট, ২০২২ ১২:৪৯ : অপরাহ্ণ

তাজিয়া মিছিলে নিজের বুকে চাকু ঢুকিয়ে মারা গেলেন যুবক

মুহররমের দিনে মর্মান্তিক ঘটনায় প্রাণ গেল ভারতের পূর্ব বর্ধমান জেলার কেতুগ্রামে। প্রথা মেনে ছুরির শিকল দিয়ে নিজের শরীরে আঘাত করতে যেয়েই এই দুর্ঘটনা ঘটে।

মঙ্গলবার (৯ আগস্ট) ছিল পবিত্র আশুরা। দিবসটি ত্যাগ ও শোকের প্রতীক। কারবালার শোকাবহ ও হৃদয়বিদারক ঘটনার দিনটি মুসলমানদের কাছে বিশেষ তাৎপর্যপূর্ণ। পবিত্র দিবস হিসেবে মুসলিম বিশ্বে এটি পালিত হয়। দিবস উদযাপনে দেশে দেশে শোকযাত্রা করেন শিয়া মুসলিমরা।

পশ্চিমবঙ্গের পূর্ব বর্ধমানের বিভিন্ন প্রান্তে প্রথা মেনে বের হয় শোকের মিছিল। এ সময় মুসলিম সম্প্রদায়ের পুরুষরা প্রত্যেকে একটি ছোট ছুরি দিয়ে একটি চেইন ধরে রাখে। তা দিয়ে ক্রমাগত নিজেদের শরীরে ছুরির শিকল দিয়ে আঘাত করে তারা।

কেতুগ্রামেও মুহররমের মিছিল বের হয়। এতে ছিলেন উনিশ বছরের সাহিরুল শেখ। তার বাড়ি কেতুগ্রামের আঁখোনা গ্রামের লেদুরিয়া পাড়ায়। তিনি কলকাতায় একটি ব্যাগ তৈরির কারখানায় কাজ করতেন। মুহররম উপলক্ষে কেতুগ্রামে বাড়ি ফেরেন তিনি। জানা গেছে, মিছিল চলাকালে সাহিরুল প্রথা মেনে নিজের শরীরে ছুরি দিয়ে আঘাত করছিলেন।

আঘাত লাগার পরেই হঠাৎ রাস্তার ওপর পড়ে যান সাহিরুল। সঙ্গীরা দেখেন, ছুরির ব্লেড সাহিরুলের বুকে ঢুকে গেছে, শরীর রক্তে ভেসে যায়। দ্রুত তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

পূর্ব বর্ধমানের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (গ্রামীণ) ধ্রুব দাস বলেন, “ঘটনাটি খুবই মর্মান্তিক। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে।”

চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, ধারালো ছুরি শরীরে ঢুকে ফুসফুস ফেটে যায়। সে কারণেই মৃত্যু হয় যুবকের। সাহিরুলের মৃত্যুতে কান্নায় ভেঙে পড়েছে পরিবার।

Print Friendly and PDF