চট্টগ্রাম, রোববার, ২৭ নভেম্বর ২০২২ , ১২ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

রাঙ্গামাটিতে কলেজছাত্রীকে দলবদ্ধ ধর্ষণ, দুই ছাত্রলীগ নেতা বহিষ্কার

প্রকাশ: ৭ আগস্ট, ২০২২ ১২:২৮ : পূর্বাহ্ণ

রাঙ্গামাটির বাঘাইছড়িতে কলেজছাত্রীকে দলবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনায় ছাত্রলীগের দুই নেতাকে বহিষ্কার করেছে উপজেলা ছাত্রলীগ। বহিষ্কৃতরা হলেন- উপজেলার বঙ্গলতলী ইউনিয়ন ছাত্রলীগ সভাপতি যীশু চৌধুরী (২৭) ও সাধারণ সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া (২৬)।

শনিবার (৬ আগস্ট) গণমাধ্যমে পাঠানো উপজেলা ছাত্রলীগের আহ্বায়ক সানি দেব ও যুগ্ম আহ্বায়ক শরিফুল ইসলাম সই করা এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বহিষ্কারাদেশে বলা হয়, দলীয় শৃঙ্খলা পরিপন্থি কার্যকলাপে জড়িত থাকায় সংগঠনের গঠনতন্ত্র মোতাবেক ছাত্রলীগ থেকে তাদের অব্যাহতি দেওয়া হয়।

উপজেলা ছাত্রলীগের আহ্বায়ক সানি দেব বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, আমরা ঘটনাটি জানার পরে তাদের সংগঠন থেকে অব্যাহতি দিয়েছি। তাদের এমন কর্মকাণ্ড আমাদের ছাত্রলীগের সম্মান ক্ষুণ্ণ করেছে। তাদের বিরুদ্ধে প্রশাসনকে যা সহযোগিতা করার প্রয়োজন হবে আমরা করবো। অপরাধী যেই হোক তাকে ছাড় দেওয়া হবে না।

এর আগে শুক্রবার (৫ আগস্ট) রাতে ভুক্তভোগী কলেজছাত্রীর বাবা ওই দুই ছাত্রলীগ নেতাসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা করেন। মামলার বাকি তিন আসামি হলেন একই এলাকার মো. আরিফ (২৬), মো. রাশেল (২৯) ও অমল বড়ুয়া (৪৫)।

মামলার এজাহারে বলা হয়, গত ১৫ জুলাই রাত ৮টার দিকে বিপ্লব বড়ুয়া ওই কলেজছাত্রীকে জরুরি আলাপ আছে বলে বাড়ির বাইরে ডেকে নিয়ে যান। মেয়েটি রাতে বাড়ি না ফিরলে পরিবারের লোকজন আশপাশে খোঁজাখুঁজি করেন। গত ১৬ জুলাই ভোরে মেয়েটি বাড়িতে এসে জানান বিপ্লব বড়ুয়া তাকে বাড়ির বাইরে ডেকে নেওয়ার পর সঙ্গে থাকা আরও কয়েকজন তার মুখ চেপে বড়ুয়া পাড়ায় একটি ঘরে নিয়ে যান। সেখানে পর্যায়ক্রমে সবাই মেয়েটিকে ধর্ষণ করেন।

বিষয়টি জানাজানি হলে স্থানীয়ভাবে মীমাংসার চেষ্টার কারণে থানায় মামলা দিতে দেরি হয় বলেও এতে উল্লেখ করা হয়।

বাঘাইছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আনোয়ার হোসেন খান বলেন, মামলার পরপরই বাঘাইছড়ি থানা পুলিশের একটি দল অভিযান চালিয়েছে। তবে কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি। আমরা অভিযান অব্যাহত রেখেছি। শনিবার সকালে ভুক্তভোগীকে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য রাঙ্গামাটি সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

Print Friendly and PDF