চট্টগ্রাম, সোমবার, ৮ আগস্ট ২০২২ , ২৪শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

স্ত্রীর ওপর রাগ করে আড়াই মাসের শিশুকে আছড়ে মেরে ফেললেন বাবা

প্রকাশ: ৫ আগস্ট, ২০২২ ২:৪৮ : অপরাহ্ণ

কেবল সন্তান জন্ম দেয়াই কি বাবার কাজ? সেই সন্তানের প্রতি যদি মমত্ববোধ না থাকে তবে বাবা হওয়াই বৃথা। তেমনই এক বাবার নৃশংসতার খবর ছড়িয়ে পড়েছে গণমাধ্যমে।

আড়াই মাসের ছেলে শিশুকে আছড়ে খুনের অভিযোগ উঠেছে এক বাবার বিরুদ্ধে। চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের পুরুলিয়ার টামনা থানা এলাকায়। নিহত শিশুটির মা তার স্বামীর বিরুদ্ধে পুলিশে লিখিত অভিযোগ করেছেন।

ভারতীয় গণমাধ্যম এবিপির প্রতিবেদন অনুযায়ী, পুরুলিয়ার টামনা থানা এলাকার গুড়কুর বাসিন্দা সাগর রুইদাস। বছর দেড়েক আগে বলরামপুরের ছোটো গাদো গ্রামের বাসিন্দা নেহারী রুইদাসের সঙ্গে বিয়ে হয় তার।

অভিযোগ উঠেছে, বিয়ের পর থেকেই বনিবনা ছিল না এই দম্পতির মধ্যে। অশান্তি লেগেই থাকত। সাগর অত্যাচার করত নেহারীর ওপর। মদ্যপ অবস্থায় মারধর করত। এরই মাঝে অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েন নেহারী। আড়াই মাস আগে ফুটফুটে পুত্র সন্তানের জন্ম দেন নেহারী।

জানা গেছে, বৃহস্পতিবার তার মা ও ভাই ডুরকু গ্রামে এসেছিলেন। নেহারী ও তার সন্তানকে বাবার বাড়ি নিয়ে যাওয়ার জন্যই গিয়েছিলেন তারা। বিষয়টি জানতে পেরেই ক্ষোভে ফুঁসতে থাকে সাগর। সেই সময় বিছানায় শুয়ে ছিল ছোট্ট শিশুটি।

অভিযোগ উঠেছে, আচমকা বিছানা থেকে ছেলেকে তুলে মাটিতে আছাড় মারে সাগর। সঙ্গে সঙ্গে রক্তাক্ত অবস্থায় শিশুটিকে নিয়ে যাওয়া হয় দেবেন মাহাতো হাসপাতালে। সেখানকার চিকিৎসকরা পরীক্ষা করে শিশুটিকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

এ ঘটনায় কান্নায় ভেঙে পড়েছেন নেহারী। এরই মধ্যে স্বামীর বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন তিনি। ঘটনার পর থেকেই পলাতক অভিযুক্ত সাগর। যুবকের কীর্তিতে হতবাক স্থানীয়রা।

প্রাথমিকভাবে মনে করা হচ্ছে, স্ত্রীর উপর রাগের বশেই এই কাণ্ড ঘটিয়েছে অভিযুক্ত। এ বিষয়ে পুরুলিয়ার পুলিশ সুপার এস. সেলভামুরুগন বলেন, ‘তদন্ত শুরু হয়েছে। অভিযুক্ত বাবার খোঁজে তল্লাশি চলছে।’

Print Friendly and PDF