চট্টগ্রাম, শুক্রবার, ১২ আগস্ট ২০২২ , ২৮শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

টানা ৫ সপ্তাহ কমার পর বিশ্ববাজারে বাড়ল স্বর্ণের দাম

প্রকাশ: ২৩ জুলাই, ২০২২ ২:১২ : অপরাহ্ণ

চলতি সপ্তাহের শেষদিকে এসে বিশ্ববাজারে বেড়েছে স্বর্ণের দাম। এ নিয়ে টানা ৫ সপ্তাহ কমার পর আন্তর্জাতিক বাজারে বাড়ল মূল্যবান ধাতুটির মূল্য। যুক্তরাষ্ট্রের ট্রেজারি ইল্ড নিম্নমুখী রয়েছে। সেই সঙ্গে দেশটির মুদ্রা ডলারের মান কমেছে।

ফলে অর্থনৈতিক ঝুঁকির মধ্যেও ইল্ডিং বহির্ভূত বুলিয়নের (স্বর্ণের বাজার) নিরাপদ আশ্রয়ের প্রতি বিনিয়োগকারীদের আবেদন বেড়েছে।

মার্কিন প্রভাবশালী সংবাদমাধ্যম সিএনবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, গতকাল শুক্রবার (২২ জুলাই) স্পটে স্বর্ণের দাম বেড়েছে শূন্য দশমিক ২৯ শতাংশ। প্রতি আউন্স বিক্রি হয়েছে ১৭২৩ ডলার ৩৪ সেন্টে। এক সপ্তাহের মধ্যে যা সর্বোচ্চ।

তবে আগের দিন (বৃহস্পতিবার, ২১ জুলাই) দামি ধাতুটির দাম ১ বছরের মধ্যে সর্বনিম্ন পর্যায়ে গিয়ে ঠেকে। ওই দিন প্রতি আউন্স বিক্রি হয় ১৭২৭ ডলার ৪ সেন্টে।

ইউএস স্বর্ণের ভবিষ্যত সরবরাহ মূল্য শূন্য দশমিক ৮ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে। প্রতি আউন্স বিকিয়েছে ১৭২৭ ডলার ৪ সেন্টে।

মূলত স্বর্ণের বাজার ঘুরে দাঁড়ানোয় ১০ বছরের মধ্যে মার্কিন ট্রেজারি ইল্ডে (ফলন) নিম্নমুখিতা দেখা গেছে। অন্যদিকে দাম ঊর্ধ্বমুখী হওয়ায় গুরুত্বপূর্ণ ধাতুটির প্রতি আকৃষ্ট হচ্ছেন বিদেশি ক্রেতারা।

ডলারও নিরাপদ আশ্রয়। টানা ৪ সপ্তাহ তেজীভাব থাকার পর চলতি সপ্তাহে মার্কিন মুদ্রার মান কমেছে। সম্প্রতি মুদ্রাস্ফীতি উপাত্ত প্রকাশ করেছে যুক্তরাষ্ট্র। এতে হতাশার চিত্র ফুটে উঠেছে।

আশা করা হচ্ছিল, যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় ব্যাংক ফেডারেল রিজার্ভ (ফেড) মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণে ১০০ বেসিস পয়েন্ট সুদের হার বাড়াবে। তবে এখন সেই প্রত্যাশা কমিয়ে দিয়েছে। আগামী ২৬-২৭ জুলাই ফেডের নীতি-নির্ধারণী বৈঠক হবে।

শিকাগো ব্লু লাইন ফিউচার্সের প্রধান বাজার কৌশলবিদ ফিলিপ স্ট্রেবল বলেন, ডলারের মূল্যহ্রাস, শেয়ারবাজারে ধস এবং ইল্ডের নিম্নমুখিতায় স্বর্ণের দর উঠেছে।

তবে তিনি মনে করেন, এ পরিস্থিতি বেশি সময় স্থায়ী হবে না। ফেডের বৈঠক ঘিরে আবার মূল্যবান ধাতুটির বাজারে অস্থিরতা নেমে আসতে পারে। কারণ, কী পরিমাণ সুদহার বাড়ানো হবে তা স্পষ্ট নয়।

 

 

Print Friendly and PDF