চট্টগ্রাম, শুক্রবার, ১২ আগস্ট ২০২২ , ২৮শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ভিডিও পাঠিয়ে পাঁচ শতাধিক নারীকে শারীরিক সম্পর্কের জন্য ব্ল্যাকমেল

প্রকাশ: ২২ জুলাই, ২০২২ ৪:৩৬ : অপরাহ্ণ

প্রথমে নীল ছবি তথা উত্তেজক ভিডিওতে তরুণীদের মুখ লাগিয়ে বিকৃত ভিডিও বানাতেন। তারপর সেই ভিডিও পাঠিয়ে শারীরিক সম্পর্কের জন্য ‘ব্ল্যাকমেল’ করতেন এক যুবক। ঘটনা প্রতিবেশি দেশ ভারতের।

স্থানীয় গণমাধ্যম নিউজ এইট্টিন-এর প্রতিবেদন অনুযায়ী, ৫৫০ জনেরও বেশি নারীকে এমন ভিডিও পাঠানোর অভিযোগে মুম্বাইয়ের ওই যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

পুলিশ জানিয়েছে, গত ফেব্রুয়ারিতে এক কলেজ ছাত্রীর অভিযোগ পেয়েই নড়েচড়ে বসে পুলিশ। ওই তরুণীর অভিযোগ, এক যুবক তাকে ও তার ফোনে যে সব নারীর নম্বর রয়েছে, তাদের প্রত্যেককে আপত্তিকর ভিডিও পাঠাচ্ছেন।

৫৫০ জনের বেশি মহিলাকে উত্তেজক ভিডিও পাঠিয়ে ব্ল্যাকমেল করছেন। তাদের মধ্যে কয়েক জন নাবালিকাও রয়েছে বলে জানা গেছে।

তরুণীর অভিযোগ, ওই যুবক হোয়াটসঅ্যাপে নিজেকে কলেজের অধ্যাপক পরিচয় দিয়েছিলেন। যুবক জানিয়েছিলেন, তিনি পড়ুয়াদের নিয়ে একটি হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ খুলে সেখানে সমস্ত নোট পাঠাবেন।

তরুণী আরও বলেছন, ‘কলেজের অধ্যাপক হিসাবে পরিচয় দেয়ায় সন্দেহ করিনি… হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে যোগ দেয়ার জন্য যে লিঙ্ক পাঠানো হয়েছিল, তাতে ক্লিক করি। ওটিপি শেয়ার করি। কিন্তু তারপরই ওই যুবক আপত্তিকর ভিডিও পাঠানো শুরু করেন।’

আন্ধেরি পুলিশের এক কর্মকর্তা বলেছেন, ১০টি ফোন ও ১২টি সিমকার্ড ব্যবহার করে এসব কাণ্ড করতেন ওই যুবক। কারচুপি করে বহু নারীর হোয়াটসঅ্যাপ ‘অ্যাকসেস’ করে তাদের ফোনে থাকা অন্য নারীদের নম্বর সংগ্রহ করতেন তিনি। এরপর তাদের সকলকে উত্তেজক ভিডিও পাঠিয়ে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপনের জন্য চাপ দিতেন।

পুলিশ আরও জানায়, গ্রেপ্তার যুবকের নাম রবি ডান্ডু। এক বেসরকারি ব্যাঙ্কের প্রযুক্তি বিভাগের চুক্তিভিত্তিক কর্মী তিনি। তার কাছ থেকে ১০টি ফোন উদ্ধার করা হয়েছে। ভারতীয় পকসো আইনসহ একাধিক ধারায় মামলা করা হয়েছে তার বিরুদ্ধে।

Print Friendly and PDF