চট্টগ্রাম, শনিবার, ২০ আগস্ট ২০২২ , ৫ই ভাদ্র, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ফ্ল্যাটে মরে পড়ে আছেন নিঃসঙ্গ ডাক্তার, স্ত্রী-কন্যারা বিদেশে

প্রকাশ: ২১ জুলাই, ২০২২ ১১:৫৮ : পূর্বাহ্ণ

রাজধানীর সেগুনবাগিচার এলাকার একটি বাসা থেকে আবুল হোসেন চৌধুরী (৬৯) নামে এক ভেটেরিনারি চিকিৎসকের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

বুধবার (২০ জুলাই) বিকেল ৫টার দিকে সেগুনবাগিচার ৬/২ নম্বর বাড়ির এ-১১ নম্বর ফ্ল্যাট থেকে ওই চিকিৎসকের মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

পরে তার মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়।

 

শাহবাগ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. আব্দুল্লাহ জানান, ট্রিপল নাইনের মাধ্যমে খবর পেয়ে ওই বাসায় যায় পুলিশ। এরপর বাসার ভেতর ফ্লোরে বিবস্ত্র অবস্থায় পড়ে থাকা ওই ব্যক্তির মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

এসআই আরও জানান, বাসার দরজাটি লাগানো ছিল। তবে লক করা ছিল না। তার শরীরে কোনো আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি। বাসায় একাই থাকতেন তিনি। ধারণা করা হচ্ছে, অসুস্থ হয়ে তার মৃত্যু হয়েছে।

এদিকে নিহতের বোনের ছেলে আশরাফুল আলম জানান, আবুল হোসেন চৌধুরী ভেটেরিনারি চিকিৎসক। তার বাড়ি সুনামগঞ্জ জেলায়। দীর্ঘদিন তিনি অস্ট্রেলিয়াতে এ পেশায় নিয়োজিত ছিলেন। এরপর দুই মেয়ে ও স্ত্রীকে নিয়ে সেখান থেকে কানাডায় চলে যান। ২০১১ সালে স্ত্রী পরিবার সেখানে রেখেই তিনি ঢাকায় চলে আসেন এবং সেগুনবাগিচার বাসায় একা একাই বসবাস শুরু করেন। ১৮ জুলাই স্ত্রী ও সন্তানদের সঙ্গে তার সবশেষ কথা হয়েছে। এরপর থেকে তার ফোনে যোগাযোগ করতে পারছিলেন না। আজকে দুপুরে পরিচ্ছন্নকর্মী ওই বাসায় ময়লা তোলার জন্য গেলে কলিংবেল দিলেও তার কোনো সাড়া শব্দ পায় না। পরে ফ্ল্যাট মালিক সমিতির সভাপতি ও সেক্রেটারিদের জানালে তারা ট্রিপল নাইনের মাধ্যমে থানায় খবর দেন। অসুস্থ হয়েই তার মৃত্যু হয়েছে বলে তাদেরও ধারণা।

সূত্র: বাংলানিউজ২৪

Print Friendly and PDF