চট্টগ্রাম, বৃহস্পতিবার, ৭ জুলাই ২০২২ , ২৩শে আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

স্ত্রী উধাও, থানার সামনে গায়ে আগুন দেওয়ার চেষ্টা স্বামীর

প্রকাশ: ১৯ জুন, ২০২২ ১২:৪২ : অপরাহ্ণ

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার থানা গেটের সামনের রাস্তায় নিজের শরীরে কেরোসিন ঢেলে আগুন লাগিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা চালিয়েছেন এক যুবক।

শনিবার (১৮ জুন) বিকেলে ওই রাস্তায় এ ঘটনা ঘটে। এ সময় থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আজিজুল হক হাওলাদার দৌড়ে এসে ওই যুবককে রক্ষা করেন। বর্তমানে থানা হেফাজতে রয়েছে তিনি।

ভুক্তভোগী হলেন, উপজেলার পাঁচরুখী গ্রামের ইব্রাহিম ভূঁইয়ার ছেলে আনন্দ ভূঁইয়া (২৭)।

জানা গেছে, প্রায় ২ বছর আগে আড়াইহাজার উপজেলার বগাদী গ্রামের সোহেল মিয়ার মেয়ে হালিমাকে (২২) বিয়ে করেন আনন্দ ভূঁইয়া। তাদের সংসারে একটি সন্তানও রয়েছে। এর মধ্যেই স্ত্রী আরেক যুবকের সঙ্গে পরকীয়ায় আসক্ত হন। এ নিয়ে তাদের মধ্যে দাম্পত্য কলহ শুরু হয়। এদিকে আজ শনিবার সকালে আনন্দ বাইরে থেকে বাড়ি এসে দেখতে পান তার স্ত্রী ও সন্তান ঘরে নাই। পরে স্ত্রীর মোবাইলে ফোনে করলে প্রেমিক রিসিভ করে এবং আর কল দিতে নিষেধ করেন তিনি। এ সময় স্ত্রীর সঙ্গে অভিমান করে একই দিন বিকেলে আড়াইহাজার থানার সামনের রাস্তায় অবস্থান নেন আনন্দ ভুঁইয়া। এ সময় নিজের শরীরে আগুন দেওয়ার জন্য কেরোসিন ঢালেন।

আড়াইহাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আজিজুল হক হাওলাদার বলেন, আজ শনিবার বিকেলে থানার সামনের রাস্তায় এক যুবক শরীরে কেরোসিন ঢেলে আগুন দেওয়ার চেষ্টা করেছিল। বিষয়টি দেখতে পেয়ে দৌড়ে গিয়ে তাকে ধরে ফেলি। যার কারণে সে আগুন দিতে পারেনি। পরে তাকে সাবান দিয়ে গোসল করাই এবং আমাদের হেফাজতে নেই।

তিনি আরও বলেন, আনন্দ ভূঁইয়ার কাছে আগুন দেওয়ার কারণ জানতে চাইলে সে বলে, তার স্ত্রী বাচ্চাকে নিয়ে আজ শনিবার ভোরবেলা পালিয়ে গেছে। মোবাইলে ফোন দিলে তাকে পায় না। পরে রাগে-দুঃখে রাস্তায় আগুন দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করে আনন্দ। এখন থানায় তার স্ত্রী ও শ্বশুর আসছেন। তাদের সঙ্গে কথা বলে সমস্যার সমাধানের চেষ্টা করা হচ্ছে।

Print Friendly and PDF