চট্টগ্রাম, বুধবার, ৬ জুলাই ২০২২ , ২২শে আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

মুসলিমদের বিক্ষোভ স্থগিতের আহ্বান জানালেন ভারতের ইসলামিক নেতারা

প্রকাশ: ১৪ জুন, ২০২২ ৫:৩১ : অপরাহ্ণ

ক্ষমতাসীন বিজেপির সাবেক মুখপাত্র নুপূর শর্মা মহানবীকে (সা.) অবমাননাকর মন্তব্য করার পর থেকেই উত্তাল ভারত। বিভিন্ন ইসলামিক দেশের তীব্র সমালোচনার মুখে কূটনৈতিক চাপের পাশাপাশি দেশটির বিভিন্ন রাজ্যে ছড়িয়ে পড়েছে বিক্ষোভ। বেশ কিছু স্থানে বিক্ষোভ সংঘর্ষে রূপ নিয়েছে, হতাহতের ঘটনাও কম নয়। এ অবস্থায় বিক্ষোভকারীদের প্রতি আন্দোলন থামানোর আহ্বান জানিয়েছে ভারতের বিভিন্ন ইসলামিক সংগঠন ও মসজিদের নেতারা। খবর এনডিটিভির।

সোমবার (১৩ জুন) আন্দোলনকারীদের এ আহ্বান জানান দেশটির ইসলামিক নেতারা। এর আগে গত সপ্তাহে বিক্ষোভকারী ও পুলিশের মধ্যকার সংঘর্ষে আন্দোলনকারী দু’জন মুসলিম কিশোর নিহত হয় এবং এ ঘটনায় পুলিশসহ আহত হয় ৩০ জনের বেশি। এরপরই এ আন্দোলন বন্ধের জন্য আহ্বান জানানো হয়েছে।

এ নিয়ে জামায়াত-ই-ইসলামি হিন্দের জ্যেষ্ঠ সদস্য মালিক আসলাম বলেছেন, যখন কেউ ইসলামকে অবজ্ঞা করে তখন তার প্রতিবাদে একতাবদ্ধ হওয়া প্রত্যেক মুসলমানের কর্তব্য। কিন্তু একই সঙ্গে শান্তি বজায় রাখাও গুরুত্বপূর্ণ। বড় কোনো গণজমায়েত বন্ধেরও আহ্বান জানানো হয়েছে।

এর আগে চলতি মাসের শুরুর দিকে নুপূর শর্মাসহ বিজেপির শীর্ষ দু’জন নেতৃত্ব পর্যায়ের ব্যক্তি মহানবী (সা.) ও ইসলামকে নিয়ে কটূক্তি করেন। এরপরই ফুঁসে ওঠে ভারতের মুসলিমরা। সেই সাথে বিশ্বের বিভিন্ন মুসলিম দেশের নেতারাও সমালোচনা করেন। ভারতকে রাষ্ট্রীভাবে ক্ষমা চাওয়ার দাবিও ওঠে। বিভিন্ন দেশে ভারতীয় পণ্য বয়কটের ঢল শুরু হয়।

অবশ্য বিজেপির ভাষ্য, কারো ব্যক্তিগত মন্তব্য রাষ্ট্র বা কোনো রাজনৈতিক দলের দায় নয়। আন্দোলন বন্ধে কঠোর অবস্থানে এখন ভারত সরকার। ঘৃণা ছড়ানোর দায়ে অর্ধশতাধিকের বেশি নেতাকর্মী ও সাধারণ মানুষকে গ্রেফতারও করেছে দেশটি।

 

Print Friendly and PDF