চট্টগ্রাম, বুধবার, ৬ জুলাই ২০২২ , ২২শে আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বিদেশ সফরে পুতিনের সঙ্গে টয়লেটে যান দেহরক্ষীরা, বের হন বাক্স হাতে!

প্রকাশ: ১৩ জুন, ২০২২ ২:০৯ : অপরাহ্ণ

পুতিন ক্যান্সারে আক্রান্ত, ভুগছেন পারকিনসন ডিজিজে কিংবা দ্রুত কমে আসছে তার দৃষ্টিশক্তি ইত্যাদি নানা খবর প্রকাশিত হয়েছে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমগুলোয়।

সেই ধারাবাহিকতায় এবার ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম ডেইলি মেইল এক প্রতিবেদনে দাবি করেছে, অসুস্থতা লুকাতে পুতিনের দেহরক্ষীরা তার মল ও মূত্র বিশেষ স্যুটকেসে ভরে নিয়ে যান। পুতিনের সিক্রেট সার্ভিসের কয়েকজন এজেন্টকে এই ‘গুরুত্বপূর্ণ’ কাজে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে।

প্রতিবেদন অনুযায়ী, ২০১৯ সালে ইউক্রেন নিয়ে কথা বলতে ফ্রান্সের এলিসি প্রাসাদে সফররত পুতিনের একটি ভিডিও অনলাইনে ছড়িয়ে পড়েছে। ওই ভিডিওতে ছয়জন প্রহরীকে নিয়ে শৌচাগারে ঢুকতে দেখা যায় পুতিনকে।

ভিডিওতে দেখা যায়, দু’জন প্রহরী দরজা দিয়ে বেরিয়ে আসেন, তার পরে অন্য একজন প্রহরী মল মূত্র ভরা বিশেষ বাক্সটি বয়ে নিয়ে আসেন। তারপর পুতিনকে বেরোতে দেখা যায়, তার সঙ্গে ছিলেন আরও দুই রক্ষী।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, ফরাসি ম্যাগাজিন প্যারিস ম্যাচ দাবি করেছে ২০১৭ সালে পুতিনের ফ্রান্স সফরের সময়ই উদ্ভট এই চর্চার বিষয়টি সামনে আসে। তারপর ২০১৯ সালে পুতিনের সৌদি আরব সফরের সময়তেও একই ঘটনা পরিলক্ষিত হয়।

ওই প্রতিবেদনে প্যারিস ম্যাচ লিখেছে, আমরা মধ্যপ্রাচ্যের পরোক্ষ সূত্র থেকে জানতে পেরেছি এই গুরুত্বপূর্ণ কাজটি রাশিয়ান ফেডারেল গার্ড সার্ভিসের (এফএসও) নিয়ন্ত্রণে পরিচালিত হয়।

এক কর্মকর্তাকে পুতিনের মল বিশেষভাবে তৈরি ব্যাগে ভরে বিশেষ বাক্সে ভরে রাশিয়ার ফিরিয়ে আনার নির্দেশ দেওয়া হয়। এফএসও এই বিষয়টি গোপন রাখার জন্য দূতাবাসের কর্মীদেরও কঠোরভাবে নির্দেশ দেয়।

বিদেশের মাটিতে পুতিন যেন কোনো চিহ্ন রেখে না যান এবং সবকিছুই যেন তার সঙ্গে ‘মাতৃভূমিতে’ স্থানান্তরিত হয়, সেই জন্যই এমনটা করা হয়। তবে এতকিছুর পরও বিষয়টি গোপন থাকেনি।

 

Print Friendly and PDF