চট্টগ্রাম, রোববার, ১৬ জুন ২০২৪ , ২রা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চেহারার সৌন্দর্য ফেরাতে তরুণী পেলেন থ্রিডি-প্রিন্টেড কান

প্রকাশ: ৪ জুন, ২০২২ ৩:২৯ : অপরাহ্ণ

২০ বছর বয়সী মেক্সিকান তরুণী অ্যালেক্সা জন্মের পর থেকে বিরল মাইক্রোশিয়া রোগে আক্রান্ত। এ জন্য জন্মের পর থেকে তার একটি কানের সঠিক বিকাশ হয়নি। দেহের অন্য অঙ্গগুলো বয়সের সঙ্গে তাল মিলিয়ে বিকশিত হয়েছে, চলছে স্বাভাবিক গতিতে। শুধু বাড়েনি একটি কান।

নানা প্রযুক্তি ব্যবহার করেও কোনোভাবেই ফেরাতে পারছিলেন না তার চেহারার পরিপূর্ণ সৌন্দর্য। অবশেষে ওই নারীর জন্য একটি থ্রিডি-প্রিন্টেড কান তৈরি করেছে অত্যাধুনিক থ্রিডি-প্রিন্টিং মেশিন। আর অবিশ্বাস্য এই সাফল্য এনে দিয়েছে থ্রিডিবায়ো থেরাপিউটিক্স নামের একটি জৈবপ্রযুক্তি বিষয়ক কোম্পানি। যার ফলে তার দৈহিক অপূর্ণতা দূর হয়েছে, পেয়েছেন সুন্দর একটি কান।

সফল এই অঙ্গ প্রতিস্থাপনের কাজটি করেছে যুক্তরাষ্ট্রের মাইক্রোশিয়া রোগের চিকিৎসায় খ্যাতনামা হাসপাতাল কনজেনিটাল ইয়ার ইনস্টিটিউটের চিকিৎসকরা।

নিউইয়র্ক টাইমস জানিয়েছে, অঙ্গটি প্রতিস্থাপনে চিকিৎসক দলের নেতৃত্ব দেন শল্যবিদ আর্তুরো বোনিলা। তিনি বলেন, ভবিষ্যতে এই প্রযুক্তি বিপ্লব ঘটাবে। থ্রিডি-প্রিন্টিং প্রযুক্তি ব্যবহার করে অঙ্গপ্রত্যঙ্গ তৈরিতে সাফল্য পাওয়ার ঘটনা এটাই প্রথম।

নতুন কান পেয়ে উল্লসিত অ্যালেক্সা বলেন, এই কানের জন্য এতদিন লোকের কটূ কথা শুনতে হতো। এখন আমার পরিপূর্ণ কান আছে, এটা খুবই আনন্দের বিষয়।

আর নিমাতা প্রতিষ্ঠানটির দাবি, থ্রিডি-প্রিন্টিং কান অন্য অঙ্গের মতোই স্বাভাবিক গতিতে চলবে। বর্তমানে এই প্রযুক্তি ব্যবহার করে ফুসফুস ও রক্ত কোষ গঠনের বিষয়ে গবেষণা চলছে।

Print Friendly and PDF