চট্টগ্রাম, বৃহস্পতিবার, ৭ জুলাই ২০২২ , ২৩শে আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

নির্যাতনের ভয়ে শ্বশুরবাড়ি থেকে উধাও, ৪ বছর পর উদ্ধার

প্রকাশ: ২ জুন, ২০২২ ৩:০৬ : অপরাহ্ণ

নাটোর সদর উপজেলার দিঘাপতিয়া এলাকায় শ্বশুরবাড়ি থেকে ৪ বছর আগে গুম হওয়া আসমানিকে টাঙ্গাইল থেকে জীবিত উদ্ধার করেছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)। বুধবার দুপুরে নিজ কার্যালয়ে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানান পিবিআই নাটোরের পুলিশ সুপার শরীফ উদ্দিন।

তিনি জানান, ২০১৮ সালের ১৫ সেপ্টেম্বর দিঘাপতিয়া ইউনিয়নের শিবদুর গ্রামে শ্বশুরবাড়ি থেকে গুম হন আসমানি। পরিবারের লোকজন অনেক খোঁজাখুঁজি করেও তাকে না পেয়ে শ্বশুরবাড়িতে যান আসমানির বাবা আকবর আলী।

দীর্ঘ পাঁচ মাস মেয়ের খবর না পেয়ে আসমানির শ্বশুরবাড়িতে গিয়ে লাঞ্ছনার শিকার হন তিনি। ঐ সময় আসমানিকে মেরে লাশ গুম করা হয়েছে বলে জানায় শ্বশুরবাড়ির লোকজন।

পুলিশ সুপার শরীফ উদ্দিন জানান, ২০১৯ সালের ৩ ফেব্রুয়ারি নাটোর সদর থানায় স্বামী দুলালসহ পরিবারের ৫ সদস্যের নাম উল্লেখ করে একটি অপহরণ মামলা করেন আসমানির বাবা। পরে পুলিশ অভিযান চালিয়ে আসমানির শ্বশুরকে গ্রেফতার করে আদালতে হাজির করে। আদালত অধিক তদন্ত করতে ২০২১ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে পিবিআইকে নির্দেশ দেয়। এরপর থেকে পিবিআইয়ের একটি দল অনুসন্ধান শুরু করে। দীর্ঘ চার বছর পর মঙ্গলবার (৩১ মে) দুপুরে আসমানিকে টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলার গোড়াই এলাকার ভাড়া বাসা থেকে জীবিত অবস্থায় উদ্ধার করে।

জিজ্ঞাসাবাদে আসমানি জানান, ২০১৫ সালে বিয়ের পর থেকেই শ্বশুরবাড়ির লোকজনের অমানবিক নির্যাতনে কাউকে কিছু না বলে স্বেচ্ছায় পালিয়ে থাকেন। এত বছর পরিচিত কারো সঙ্গে যোগাযোগ করেননি তিনি।

Print Friendly and PDF