চট্টগ্রাম, সোমবার, ২৮ নভেম্বর ২০২২ , ১৩ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

পদ্মা সেতু পারাপারে টোল হার নির্ধারণ করে প্রজ্ঞাপন

প্রকাশ: ১৭ মে, ২০২২ ৪:৪৯ : অপরাহ্ণ

পদ্মা সেতু পারাপারের জন্য সরকার টোল হার নির্ধারণ করেছে। মঙ্গলবার (১৭ মে) সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয় বিভিন্ন পরিবহনের জন্য আলাদা আলাদা টোল হার নির্ধারণ করে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে।

প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী পদ্মা সেতু পাড়ি দিতে বড় বাসকে দিতে হবে ২ হাজার ৪০০ টাকা, মোটরসাইকেল ১০০ টাকা, কার, জীপ ৭৫০ টাকা, পিকআপ ১২০০ টাকা, মাইক্রোবাস ১৩০০ টাকা, ছোট বাস (৩১ আসন/১ রুম) ১৪০০ টাকা, মাঝারি বাস (৩২ আসন/বেশি) ২০০০ টাকা, ছোট ট্রাক (৫ টন) ১৬০০ টাকা, মাঝারি ট্রাক (৫-৮ টন) ২১০০ টাকা, মাঝারি ট্রাক (৮-১১ টন) ২৮০০ টাকা, ট্রাক (৩ এক্সেল পর্যন্ত) ৫৫০০ টাকা, ট্রেইলার (৪ এক্সেল পর্যন্ত) ৬০০০ টাকা, ট্রেইলার (৪ এক্সেলের অধিক) ৬০০০+ প্রতি এক্সেল ১৫০০টাকা।

গত ২৮ এপ্রিল পদ্মা সেতুর জন্য টোল হার প্রস্তাব করে অনুমোদনের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে পাঠায় সেতু মন্ত্রণালয়। প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরের অনুমোদনের পর তা আজ প্রজ্ঞাপন আকারে প্রকাশ করা হয়।

জুনের শেষের দিকে পদ্মা সেতু যানবাহন চলাচলের জন্য খুলে দেয়ার  ঘোষণা দেয়া হয়েছে। এখন উদ্বোধন অনুষ্ঠানের শেষ মুহুর্তের প্রস্তুতির কাজ চলছে।

এদিকে পদ্মা সেতুর টোল আদায়কারী ও সেতুর রক্ষণাবেক্ষণে ঠিকাদার নিয়োগ করেছে সেতু বিভাগ। এ কাজ পেয়েছে কোরিয়া এক্সপ্রেস করপোরেশন (কেইসি) ও চায়না মেজর ব্রিজ ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানি (এমবিইসি)।

এর মধ্যে এমবিইসি বর্তমানে মূল সেতুর নির্মাণকাজ এবং কেইসি পরামর্শক প্রতিষ্ঠান হিসেবে কাজ করছে। আগামী পাঁচ বছরের জন্য এই দুটি প্রতিষ্ঠান টোল আদায়, সেতু ও সেতুর দুই প্রান্তে যানবাহন চলাচল ব্যবস্থাপনায় আধুনিক পদ্ধতি চালু এবং সেতু ও নদীশাসনের কাজ রক্ষণাবেক্ষণ করবে। এর জন্য ৫ বছরে তাদের দিতে হবে ৬৯৩ কোটি টাকা।

 

Print Friendly and PDF