চট্টগ্রাম, সোমবার, ৫ ডিসেম্বর ২০২২ , ২০শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

আজানের মধুর ধ্বনি শুনে মুসলিম হলেন খ্রিস্টান বাবা-মেয়ে

প্রকাশ: ১১ মে, ২০২২ ৩:০০ : অপরাহ্ণ

আজানের মধুর ধ্বনি শুনে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছেন এক আমেরিকান খ্রিস্টান। অ্যান্থনি হকিংস থেকে তিনি এখন জিবরিল মুহাম্মদ। ইসলাম গ্রহণের পর তার অনুভূতি ব্যক্ত করতে গিয়ে তিনি বলেন, ‘মনে হচ্ছে মহান আল্লাহ্ স্বয়ং আমাকে পথ দেখাচ্ছেন।’

সিয়াসত ডেইলি ও মুসলিম মিররের খবর অনুযায়ী, বাবা জিবরিলের পথ অনুসরণ করে তার ২২ বছর বয়সি মেয়েও ইসলাম গ্রহণ করেছেন। পশ্চিমা সংস্কৃতির বদলে বাবা-মেয়ে গ্রহণ করেছেন ইসলামি সংস্কৃতিকে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মুসলিম হয়ে উপলব্ধি অনেকটাই পালটে গেছে জিবরিলের। তিনি বলেন, ‘আমরা আসলে সবাই মুসলিম হয়েই জন্ম নিই। তারপর আমাদের আচরণ আমাদের বিভাজিত করে দেয়।’

কীভাবে ইসলামের প্রতি ভালোবাসা জন্মাল তার এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘তখন আজান হচ্ছিল আমেরিকার একটি মসজিদে। আমার কাছে মনে হচ্ছিল আমি একটি মনোমুগ্ধকর ধ্বনি শুনলাম। আমি ভাবছি, এত সুন্দর কীসের শব্দ?

আমি খেয়াল করলাম, আশপাশের পরিবেশ অনেক শান্ত। পাখিরা গোল করে আকাশে উড়ছে। আশপাশের সব মানুষ এগিয়ে যাচ্ছে। আমিও এগিয়ে গেলাম মসজিদের দিকে।

গিয়ে মুয়াজ্জিনকে জিজ্ঞাসা করলাম, উনি গান গাইছেন কেন? একজন মুসল্লি জবাব দিলেন, তিনি আজান দিচ্ছেন, নামাযের জন্য সবাইকে ডাকছেন।

এরপরই তার ইসলাম সম্পর্কে আগ্রহ জন্মায় এবং তিনি ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করবেন বলে ঠিক করেন। অ্যান্থনি থেকে জিবরিল মুহাম্মদ হওয়া পর এখন তিনি নিয়মিত পাঁচ ওয়াক্ত নামায আদায় করেন এবং পবিত্র কুরআন তেলাওয়াত করেন।

মুহাম্মদের কথায়, ‘ইসলাম গ্রহণ করার পর আমার অনুভূতি হলো, আমি যেন এক টুকরো শান্তির সন্ধান পেলাম। আমার অনুভূতি হচ্ছে, আল্লাহ্ নিজেই যেন আমাকে পথ দেখাচ্ছেন।’

Print Friendly and PDF